সরিষাবাড়ীতে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন মাহমুদা

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন প্রার্থী মাহমুদা খাতুন শিখা। ছবি : বাংলারচিঠি ডটকম

মমিনুল ইসলাম কিসমত, সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠি ডটকম

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাহমুদা খাতুন শিখা প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। ৮ মার্চ দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির বাসভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন। এতে সরিষাবাড়ীতে আগামী ১০ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলী আক্তার মাঠে থাকছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সরিষাবাড়ীতে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন পাঠান ও ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ডোয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বিএসসি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিবাচিত হন। একমাত্র মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলী আক্তার (ফুটবল প্রতীক) ও মাহমুদা খাতুন শিখা (কলসি প্রতীক) প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা চালান। এ পদে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নানা নাটকীয়তা শেষে মাহমুদা খাতুন নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। ৮ মার্চ দুপুরে এ উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিতভাবে তিনি এ ঘোষণা দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ ছানোয়ার হোসেন বাদশা, মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী জহুরা লতিফ, মাহমুদা খাতুনের স্বামী সরওয়ার কাউসার প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে মাহমুদা খাতুন বলেন, ‘দলের সিনিয়র নেতাদের সিদ্ধান্তে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানো ও একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী জেলী আক্তারের পক্ষে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা বাংলারচিঠি ডটকমকে বলেন, ‘উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই একক প্রার্থী রাখা হয়েছে।’

Views 52 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad