ইসলামপুরে বিদ্রোহী প্রার্থীর মাঝে নৌকা প্রার্থীদের প্রচারণা জমজমাট

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, ইসলামপুর প্রতিনিধি, বাংলারচিঠিডটকম: জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একাধিক বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী থাকায় আওয়ামী লীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নৌকার প্রচারণা জমে উঠেছে।

নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে ততই আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী নৌকার মাঝিদের প্রচার প্রচারণায় বিজয়ের পাল্লায় ভারী হচ্ছে নির্বাচনী মাঠ। ইউনিয়ন পর্যায়ে নেতাকর্মী ছাড়াও প্রতিনিয়তই নৌকা প্রার্থীদের বিজয় করার লক্ষ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা নৌকার প্রার্থীদের নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে গণসংযোগ করছেন। তুলে ধরছেন সভা, সমাবেশ করে বর্তমান সরকারের নানান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড, উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকা প্রতীকের ভোট প্রার্থনা করছেন। ফলে আসন্ন ইসলামপুরে ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ঘরের একাধিক বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী থাকলেও অবশেষে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীদের নৌকারই বিজয় হবে বলে আশা করছেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ৬ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনিত ৬ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ৬ জন, জাতীয় পার্টির ২ জন ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ৭ জনসহ ১৫ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী লড়াই করছেন। স্বতন্ত্রদের মধ্যে বিএনপি নেতাও রয়েছে ৩ জন। তবে নির্বাচনের মূল লড়াই হবে আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা প্রার্থী ও স্বতন্ত্র বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাঝে।

নৌকা প্রতীকের আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থীদের মধ্যে পলবান্ধা ইউপি’র বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ হোসেন ডিহিদার স্বাধীন, গোয়ালেরচর ইউপিতে হারুন অর রশিদ, ইসলামপুর সদরে হাবিবুর রহমান শাহিন, গাইাবান্ধার মাকছুদুর রহমান আনছারী, চরগোয়ালীনির শহিদুল্ল্যাহ সরকার, চরপুটিমারীর সামছুজ্জামান সুরুজ মাস্টার বর্তমানে চেয়ারম্যানেরও দায়িত্ব পালন করছেন। তবে এবারও আশাবাদী নৌকার মাঝিরা দলীয় প্রতীকে নির্বাচনে জয়ী হয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি’র নেতৃত্বে এলাকার অসমাপ্ত উন্নয়নসহ জননেত্রী শেখ হাসিনার সোনার বাংলা গড়তে আরও বেশি অবদান রাখবেন। তাই উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করেছেন তারা।

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad