দেওয়ানগঞ্জে অনেক প্রতিবন্ধী ভাতা বঞ্চিত

দেওয়ানগঞ্জে ভাতা বঞ্চিত এক প্রতিবন্ধী শিশু। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

বিল্লাল হোসেন মন্ডল, দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ঘোষিত শত ভাগ বয়স্ক ও বিধবা ভাতার আওতায় আনা হলেও জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার অনেক প্রতিবন্ধী রয়েছে ভাতা বঞ্চিত। এদের সাথে কথা বলে জানা যায়, স্থানীয় মেম্বার বা নেতাদের আর্থিকভাবে খুশি করতে না পারায় ভাতা সুবিধা পায়নি তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মৌলভীরচর চার নম্বর পাড়ার প্রতিবন্ধী শামীম হাসানের (৪২) মতে মেম্বারের পিছনে ঘুরে অতিষ্ঠ তিনি। একইভাবে পঙ্গু পায়ের চামড়া ক্ষয় করেছে সাব্বির হোসেন (১২) ও তার বাবা শফি আলম।

সানন্দবাড়ী লম্বা পাড়া বালুচর গ্রামের প্রতিবন্ধী রিফাতের (১২) দাদা আব্দুল মান্নান বলেন, আমরা রাজিবপুরের সংকর মাদবপুর থেকে নদী ভাঙ্গনের ফলে সহায়সম্বল হারিয়ে এখানে ঠাঁই নিয়েছি। এই ইউনিয়নের ভোটার না হওয়ায় আমার নাতীর নাম দেয় নি।

একই গ্রামের কোরবান আলীর ছেলে লাভলু (২৬) বলেন, আমি প্রতিবন্ধী হওয়া সত্ত্বেও টাকার জন্য নাম পাইনি।

দেওয়ানগঞ্জে ভাতা বঞ্চিত এক প্রতিবন্ধী । ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

এদিকে উত্তর লংকারচর গ্রামের মনির হোসেনের মেয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধী আমিনার (৮) ভাতা কার্ডে নাম ওঠেনি টাকার অভাবে। অজানা কারণে সরকারের যুগান্তকারী প্রতিবন্ধী সুবিধা হতে বঞ্চিত সানন্দবাড়ী নবীনাবাদ গ্রামের শবজাল হোসেনের ছেলে সোলাইমান (১২) ও সবুজ পাড়া গ্রামের সীতা রামের ছেলে জঞ্জালু (৩৭)।

এ ব্যাপারে সমাজসেবা অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল আমীন জানান, গত ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে প্রতিবন্ধীদের কোন কাজ করা হয়নি, তাই অনেক প্রতিবন্ধী ভাতা বঞ্চিত। আসছে সময়ে বাংলাদেশে কোথাও কোনো প্রতিবন্ধী ভাতা বঞ্চিত থাকবেনা।

sarkar furniture Ad
Green House Ad