জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ওএসডি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, জামালপুর
বাংলারচিঠিডটকম

বাংলাদেশ প্রতিদিনের জামালপুর প্রতিনিধি প্রয়াত সাংবাদিক শফিক জামান লেবু চিকিৎসায় ও প্রশাসনিক কাজে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক চিকিৎসক মো. সিরাজুল ইসলামকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ওএসডি করে তাকে কুমিল্লার ম্যাটসে যুক্ত করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে ২৮ এপ্রিল এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকদের দায়িত্বে অবহেলায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর মৃত্যুর ঘটনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক চিকিৎসক মো. আবুল কাশেমকে প্রধান করে গঠিত পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলামকে ওএসডি করে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ ২৮ এপ্রিল একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। মো. সিরাজুল ইসলামকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ওএসডি করে তাকে কুমিল্লার ম্যাটসে যুক্ত করা হয়েছে।

একই সাথে ওই প্রজ্ঞাপনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ওএসডি কর্মকর্তা চিকিৎসক প্রফুল্ল কুমার সাহাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক হিসেবে বদলি করা হয়েছে। উভয়কেই সাত কর্মদিবসের মধ্যে বদলিকৃত কর্মস্থলে যোগদান করতে বলা হয়েছে। সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর চিকিৎসার অবহেলার অভিযোগ ওঠা হাসপাতালের সহকারী নিবন্ধক চিকিৎসক মো. কামরুজ্জামান ও জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা কাজী রফিকুল হকের ব্যাপারেও তদন্ত কমিটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করলেও মন্ত্রণালয় ওই দু’জন চিকিৎসকে আরও সাতদিনের সময় দিয়ে তাদেরকে জবাবদিহিতা করতে বলেছে।

একই সাথে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক চিকিৎসক মো. আবুল কাশেম হাসপাতালের সহকারী পরিচালকের কার্যালয়ের প্রধান সহকারী মো. আবু হান্নানকে নেত্রকোণা জেলার খালিয়াজুড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলির আদেশ জারি করেছেন।

এদিকে তদন্ত কমিটির প্রধান ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক চিকিৎসক মো. আবুল কাশেম সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলামকে ওএসডি করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলারচিঠিডটকমকে বলেন, তদন্তে জামালপুর সদর হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম, সহকারী নিবন্ধক চিকিৎসক মো. কামরুজ্জামান ও জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা কাজী রফিকুল হক এই তিন জনের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দিয়েছি মন্ত্রণালয়ে। তাদের মধ্যে সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলামকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ওএসডি এবং তার স্থলে চিকিৎসক প্রফুল্ল কুমার সাহাকে বদলি করার প্রজ্ঞাপন হাতে পেয়েছি। বাকি দু’জন চিকিৎসকের বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত হয়েছে তা আমি জানি না।

তিনি আরও বলেন, সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে সহকারী পরিচালকের কার্যালয়ের প্রধান সহকারী মো. আবু হান্নানের ব্যাপারে কোনো অভিযোগ আসেনি। তবে তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক কাজে নানা অভিযোগ উঠায় নেত্রকোণা জেলার খালিয়াজুড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে বদলি করা হয়েছে।

এদিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী চিকিৎসক মুরাদ হাসান গত ২৮ এপ্রিল সন্ধ্যায় জামালপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর স্মরণসভায় তার বক্তব্যে মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলামকে ওএসডি এবং ওই দু’জন চিকিৎসককে জবাবদিহিতা করার জন্য সাতদিনের সময় দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, সাংবাদিক শফিক জামান লেবু হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসার জন্য ১২ এপ্রিল সকালে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তার হৃদরোগের পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করেই তাকে গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ দিয়ে বিদায় করে দেন। শফিক জামান ওইদিন সন্ধ্যায় ফের গুরুতর অসুস্থ হয়ে স্বজন ও সাংবাদিকদের সাথে নিয়ে জামালপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার চিকিৎসার ব্যবস্থা না করে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে দেন। ওই রাতেই তিনি ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।

sarkar furniture Ad
Green House Ad