সরিষাবাড়ীতে ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

সরিষাবাড়ীতে ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

মাহমুদুল হাসান মুক্তা, জামালপুর ॥
নানা আয়োজনে ২০ আগস্ট জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র সাবেক মহাসচিব এবং সাবেক স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী প্রয়াত ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

ব্যারিস্টার সালাম তালুকদারের ভাতিজা, জামালপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীমের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ২০ আগস্ট সকালে সরিষাবাড়ী পৌরসভার মুলবাড়ি গ্রামে ব্যারিস্টার সালাম তালুকদারের কবরে ফাতেহা পাঠ ও শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, শোকর‌্যালি, দলীয় কার্যালয়ে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কাঙালিভোজসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

স্থানীয় আরামনগর বাজারে বিএনপি কার্যালয়ে সরিষাবাড়ী উপজেলা বিএনপির সভাপতি আজিম উদ্দিন আহাম্মেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী শাহ্ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন, সরিষাবাড়ী পৌরসভার সাবেক মেয়র ফয়জুল কবীর তালুকদার শাহীন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

স্মরণসভার পর দলীয় কার্যালয় থেকে শোকর‌্যালি বের হয়। শোকর‌্যালিতে জেলা বিএনপির সভাপতি ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম ও সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী শাহ্ মো. ওয়ারেছ আলী মামুনসহ জেলা ও উপজেলার বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী অংশ নেন। শোকর‌্যালি শেষে নেতা-কর্মীরা স্থানীয় মুলবাড়ি গ্রামে ব্যারিস্টার সালাম তালুকদারের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। পরে সেখানে মোনাজাতের আয়োজন করা হয়।

ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদার স্মরণে বের হয় শোকর‌্যালি। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

এসব কর্মসূচিতে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী শাহ্ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন ছাড়াও জেলা শহর থেকে সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সফিউর রহমান সফি, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন মিলন, জামালপুর পৌর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাইন উদ্দিন বাবুল, জেলা শ্রমিকদলের সভাপতি শেখ আব্দুস সোবহান ও সাধারণ সম্পাদক জীবন কৃষ্ণ বসাক, জেলা মৎস্যজীবীদলের আহ্বায়ক আব্দুল হালিমসহ বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী অংশ নিয়ে ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালের ২০ আগস্ট উন্নত চিকিৎসার জন্য ব্যারিস্টার সালাম তালুকদারকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়ার পথে হযরত শাহজালাল (তৎকালীন জিয়া) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদার ১৯৩৬ সালের ৪ নভেম্বর জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার মুলবাড়ি গ্রামের সম্ভ্রান্ত তালুকদার পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের হাত ধরে ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদার জাতীয়তাবাদী রাজনীতিতে সক্রিয় হন। তিনি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতাদের মধ্যে অন্যতম। সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাসনামলে তিনি আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীসহ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ অনেক দায়িত্ব পালন করেন। জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর বিএনপির অস্তিত্ব রক্ষা এবং জাতীয়তাবাদ রাজনীতির প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। পরবর্তীতে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন বিএনপি সরকারের এলজিআরডি মন্ত্রী হন এবং দলের মহাসচিব নিযুক্ত হয়ে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদার ’৯০ এর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের সক্রিয় নেতা ছিলেন। তিনি ছিলেন চারদলীয় ঐক্যজোটের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং আমৃত্যু চারদলীয় লিঁয়াজো কমিটির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

Views 45   ফেসবুকে শেয়ার করুন!
সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad