ঝিনাইগাতীতে দ্বিতীয় বিয়ে করতে গিয়ে বরসহ আটক পাঁচ

সুজন সেন, নিজস্ব প্রতিবেদক, শেরপুর
বাংলারচিঠি ডটকম

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় প্রতারণা করে দ্বিতীয় বিয়ে করতে গিয়ে বর শাহীনুর আলম শাহীন (২৫) সহ পাঁচ বরযাত্রীকে আটক করেছে থানা পুলিশ। শাহীন পার্শবর্তী শ্রীবরদী উপজেলার গোপালখিলা গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের ছেলে। ঘটনাটি ঘটে ২৮ জানুয়ারি রাতে। পরে ২৯ জানুয়ারি বিকেলে বিষয়টি মিটমাট করতে থানায় সমঝোতা বৈঠকের প্রস্তুতি শুরু হয়।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, শাহীন প্রথম বিয়ের কথা গোপন রেখে ২৮ জানুয়ারি রাতে দ্বিতীয় বিয়ে করতে যায় ঝিনাইগাতী উপজেলা সদর বাজার এলাকার আব্দুল হাকিমের মেয়ে হেলেনাকে। এ সময় প্রায় ৪০ জন বরযাত্রীও ছিল। রাত সাড়ে ১১টার দিকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার এক পর্যায়ে কনের পিতা আব্দুল হাকিমসহ কনে পক্ষের লোকজন জানতে পারে শাহীনের প্রথম স্ত্রী রয়েছে। এ নিয়ে বর ও কনের উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দু’ পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। শুরু হয় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা। এতে উভয় পক্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়। আহতদের ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় কনে পক্ষের লোকজনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বর শাহীনসহ পাঁচ বরযাত্রীকে আটক করে পুলিশ।

শাহীনের ছোট ভাই শামীম হাসান বলেন, তার ভাই প্রথম বিয়ে করেছিল পাঁচ বছর আগে। ইতিমধ্যে তাদের বিচ্ছেদও হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঝিনাইগাতী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, উভয় পক্ষকে নিয়ে থানায় সমঝোতা বৈঠকের প্রস্তুতি চলছে।

Views 17 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad