জামালপুর এপির সাথে গণমাধ্যমকর্মীদের মতবিনিময় সভা, জাহাঙ্গীর সেলিম শিশুবিষয়ক শুভেচ্ছাদূত নির্বাচিত

জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের উদ্যোগে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন উন্নয়ন সংঘের নির্বাহী পরিচালক মো. রফিকুল আলম মোল্লা।ছবি: বাংলারচিঠিডটকম

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলারচিঠিডটকম: শিশুদের মৌলিক চাহিদা পূরণের জন্যে খানার স্থায়ী আয়ের উৎসে সহযোগিতা, মা ও শিশুর স্বাস্থ্য ও পুষ্টি, ওয়াস, শিশু সুরক্ষা এবং অংশগ্রহণ কার্যক্রমের মাধ্যমে সমাজের অবস্থা উন্নতির লক্ষ্যে জামালপুরে বাস্তবায়নাধীন এরিয়া প্রোগ্রাম (এপি) এর তথ্য-উপাত্ত নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মুখ্য আলোচক ছিলেন গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ওয়ার্ল্ড ভিশনের যোগাযোগ বিভাগের প্রধান দেবাশীষ রঞ্জন সরকার।

৭ ফেব্রুয়ারি রাতে উন্নয়ন সংঘের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ডিটিআরসিতে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মো. রফিকুল আলম মোল্লা। সভা সঞ্চালনা করেন উন্নয়ন সংঘের মানবসম্পদ উন্নয়ন পরিচালক সাংবাদিক জাহাঙ্গীর সেলিম।

জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের উদ্যোগে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।ছবি: বাংলারচিঠিডটকম

সভায় অন্যান্যের মাঝে আলোচনায় অংশ নেন দৈনিক জনকণ্ঠের জেলা প্রতিনিধি আজিজুর রহমান ডল, দৈনিক কালের কণ্ঠের জেলা প্রতিনিধি মোস্তফা মনজু, দৈনিক আলোচিত জামালপুরের নির্বাহী সম্পাদক সাযযাদ আনসারী, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার জেলা প্রতিনিধি মুখলেছুর রহমান লিখন, সময় টেলিভিশন ও আজকের পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম, এসএ টিভি ও বাংলাদেশ বেতারের জেলা সংবাদদাতা ফজলে এলাহী মাকাম, ডিবিসি নিউজ ও বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি শুভ্র মেহেদী, মানবকণ্ঠের জেলা প্রতিনিধি কাফি পারভেজ, দীপ্ত টিভির জেলা প্রতিনিধি তানভীর হীরা, উন্নয়ন সংঘের সহকারী পরিচালক কর্মসূচি মুর্শেদ ইকবাল, ওয়ার্ল্ড ভিশনের যোগাযোগ বিভাগের ব্যবস্থাপক জুলিয়েট মন্ডল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে ওয়ার্ল্ড ভিশনের ৫০ বছরের কার্যক্রমের ভিডিও চিত্র এবং জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের কার্যক্রমের সচিত্র প্রতিবেদন তুলে ধরেন এপি ব্যবস্থাপক সাগর ডি কস্তা। সভায় জামালপুরে ১৫ জন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও ওয়ার্ল্ড ভিশন এবং উন্নয়ন সংঘের কর্মীরা অংশ নেন। ওয়ার্ল্ড ভিশন ও উন্নয়ন সংঘ গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

আলোচনা সভা শেষে সর্বসম্মতিক্রমে ওয়ার্ল্ড ভিশন জামালপুরের শিশু বিষয়ক শুভেচ্ছাদূত হিসেবে নির্বাচিত হন জাহাঙ্গীর সেলিম। যিনি জামালপুরে শিশু সুরক্ষা এবং শিশুর প্রতি সকল প্রকার সহিংসতা প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলনের পাশাপাশি গণমাধ্যমে ব্যাপক লেখালেখি করে থাকেন। আগামীতে তার উপর অর্পিত দায়িত্ব আরো জোরালো হবে বলে উপস্থিত সবাই আশা ব্যক্ত করেন। তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ওয়ার্ল্ড ভিশন, উন্নয়ন সংঘের নেতৃবৃন্দ এবং উপস্থিত সাংবাদিকগণ।

জামালপুরে ওয়ার্ল্ড ভিশনের শিশু বিষয়ক শুভেচ্ছাদূত নির্বাচিত হওয়ায় জাহাঙ্গীর সেলিমকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।ছবি: বাংলারচিঠিডটকম

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে বেসরকারি সংস্থা উন্নয়ন সংঘ জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রাম এপি বাস্তবায়ন করছে। এছাড়া ওয়ার্ল্ড ভিশনের সাথে অংশিদারিত্বে এনএসভিসি ও বিংগস প্রকল্প উন্নয়ন সংঘ বাস্তবায়ন করছে বলে সভা সুত্র জানায়।

ওয়ার্ল্ড ভিশনের জামালপুর এপি ব্যবস্থাপক সাগর ডি কস্তা জানান, এরিয়া প্রোগ্রামটি জামালপুর সদর উপজেলার লক্ষ্মীরচর, শরিফপুর ইউনিয়ন এবং জামালপুর পৌরসভার ১, ১০, ১১, ও ১২ নং ওয়ার্ডে বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। এই কর্মসূচির আওতায় ৩৯টি গ্রামে ২৩ হাজার ২৮২ জন উপকারভোগী নির্বাচন করা হয়েছে। কর্মসূচির সকল কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন করতে এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষ নিয়ে গ্রাম উন্নয়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। কার্যক্রমের মধ্যে জীবিকায়ন, স্বাস্থ্য, পুষ্টি, ওয়াস এবং স্পন্সরশীপ অন্যতম। এরমধ্যে আবার খানা জরিপ, দক্ষতা উন্নয়ন, পরিবেশ সম্মত গ্রাম প্রতিষ্ঠা, জিঙ্ক ধান উৎপাদন, অতিদারিদ্রের উন্নয়ন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, দল গঠন, সক্ষমতার বিকাশ ঘটানো, প্রসবপূর্ব ও প্রসব পরবর্তী সেবা, শিশু অধিকার বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি, বিপদাপন্ন শিশুর তালিকা তৈরিসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। কর্মসূচি বাস্তবায়নে অর্থায়ন করছে হংকং।

sarkar furniture Ad
Green House Ad