বিএডিসি মাঠে গাঁজার আসরে অভিযান, আটক ৮ যুবক কারাগারে

ফুলবাড়িয়া এলাকায় বিএডিসি মাঠে গাঁজার আসর থেকে আটক আট যুবক। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরে গাঁজার আসর থেকে আট যুবককে আটক করে সাতজনকে ১৫ দিন করে এবং একজনকে সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়ে জেলা কারাগারে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ১৮ নভেম্বর রাতে জামালপুর শহরের ফুলবাড়িয়া এলাকায় বিএডিসি মাঠে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম ও সহকারী কমিশনার মো. আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে র‌্যাব-১৪ জামালপুর ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার এম এম সবুজ রানা ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মো. হুমায়ুন কবীর ভূঁইয়া ১৮ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে জামালপুর শহরের ফুলবাড়িয়া এলাকায় বিএডিসি মাঠে মাদকবিরোধী অভিযান চালান। এ সময় সেখানে গাঁজার আসর থেকে আট যুবককে হাতেনাতে আটক করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটক আট যুবকের মধ্যে জামালপুর শহরের বাগানবাড়ী এলাকার মো. সেলিমের ছেলে সাকিবুল হাসান সজীবকে (২২) সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং বাকি সাতজনের প্রত্যেককে পনের দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো সাতদিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম মো. আরিফুর রহমান।

পনের দিনের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত সাত যুবকরা হলেন- জামালপুর শহরের ফুলবাড়িয়া এলাকার আমির হোসেনের ছেলে নাহিদুল ইসলাম (২৫), হারুন অর রশিদের ছেলে সোয়ানুর রহমান (২১), রুমেল হোসেনের ছেলে আরিফ হোসেন (২২), তারা মিয়ার ছেলে রাহান হোসেন (২৩), মো. খলিলের ছেলে রিদুয়ান (২০), মোবারক হোসেনের ছেলে আল জিহান (২১) ও রুহুল আমিনের ছেলে জোবায়ের ইসলাম (২০)। ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(৫) ধারায় তাদের প্রত্যেককে এ সাজা দেওয়া হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের রায়ের পর তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী হাকিম মো. আরিফুর রহমান মাদকবিরোধী এ অভিযানে আট যুবককে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দেওয়ার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Views 335 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad