বকশীগঞ্জে নদী ভাঙনে ভিটে মাটি হারা মুক্তিযোদ্ধার খোঁজ নিলেন ইউএনও!

মুক্তিযোদ্ধা খোকা মিয়ার বাড়িতে গিয়ে খোঁজ খবর নেন ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় দশানী নদীর ভাঙনে ভিটে মাটি বিলীন হওয়া মুক্তিযোদ্ধা খোকা মিয়ার বাড়িতে গিয়ে খোঁজ খবর নিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুন মুন জাহান লিজা।

১২ অক্টোবর বিকালে সাধুরপাড়া ইউনিয়নের আইরমারী খান পাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা খোকা মিয়ার বাড়িতে খোঁজ নিতে যান তিনি।

এসময় তার সাথে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) হাসান মাহবুব খান, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান, মেরুরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম জেহাদ, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জি এম ফাতিউল হাফিজ বাবু, সাংবাদিক রাজ্জাক মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, গত তিন বছরে দশানী নদীর ভাঙনে ৫ বিঘা জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায় আইরমারী খান পাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা খোকা মিয়ার। শুধু তাই নয় এবছর নদী গর্ভে সিংহভাগ ভিটে মাটিও বিলীন হয়ে গেছে।

ভিটে মাটি হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েন ওই মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের এমন দুর্দশার খবর পেয়ে ১২ অক্টোবর বিকালে তার বাড়িতে খোঁজ খবর নিতে যান ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা। এসময় ইউএনওকে কাছে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন মুক্তিযোদ্ধা খোকা মিয়া ও তার পরিবার। পরে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে পুনবার্সনের আশ্বাস ও সরকারি সব সহযোগিতার আশ্বাস দেন ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা খোকা মিয়া জানান, ইউএনও সাহেব আমার খোঁজ নিতে বাড়িতে এসেছেন, আমি তার প্রতি খুশি হয়েছি। একই সাথে তিনি আমার পরিবারের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

Views 64 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad