বকশীগঞ্জে বরযাত্রীর বহরে হামলা, নববধূকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা

বকশীগঞ্জে বরযাত্রীর বহরে হামলায় গুরুতর আহত ফিরোজ। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, জামালপুর
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় বরযাত্রীর বহরে হামলা চালিয়ে নববধূকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা এবং বহরের কয়েকজন নারীর কাছ থেকে স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। হামলায় বহরের অন্তত: আটজন আহত হয়েছেন। ৭ জুন ভোররাত রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার মেরুরচর ইউনিয়নের মেরুরচর বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলার সময় বরযাত্রীর বহরে থাকা বরের চাচা আহত মো. সাইফুল ইসলাম বাংলারচিঠিডটকমকে জানান, তার ভাতিজা মেরুরচর ইউনিয়নের রবিয়ার চর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মো. মিজানুর রহমান গত ১২ মে একই উপজেলার মেরুরচর গ্রামের এক তরুণীকে বিয়ে করেন। কনেকে আনুষ্ঠানিকভাবে উঠিয়ে নেয়ার ধার্য্য দিন অনুযায়ী ঈদের পরের দিন ৬ জুন রাতে কনের বাড়িতে তাদের আনুষ্ঠানিকতা সারেন। পরে ৭ জুন ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে তারা কনেকে মেরুরচর গ্রামের বাড়ি থেকে নিয়ে হেটে বর মিজানুরদের বাড়ি রবিয়ারচর গ্রামে যাচ্ছিলেন। পথে মেরুরচর বাজারে একদল দুর্বৃত্ত বরযাত্রীর বহরে হামলা চালিয়ে কনেকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। বরযাত্রীর বহরের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে একটি মোটরসাইকেলে করে বর ও কনেকে দ্রুত সেখান থেকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।

হামলাকারীরা কনেকে না পেয়ে তারা বরযাত্রীর বহরে থাকা ২০/২৫ জনের ওপর হামলা চালায়। হামলায় অন্তত: আটজন আহত হন। মেরুরচর বাজার ও আশপাশের লোকজন টের পেয়ে এগিয়ে গেলে হামলাকারীরা বরযাত্রীর বহরে থাকা কয়েকজন নারীর কাছ থেকে বেশকিছু স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। আহতদের মধ্যে মধ্যে ফিরোজ ও কামরুল নামের দু’জনকে বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বরের চাচা মো. সাইফুল ইসলাম অভিযোগ করে আরও বলেন, ‘মেরুরচরের এক যুবক কনেকে বিয়ের আগে থেকেই উত্যক্ত করতো। আমাদের ধারণা ওই যুবকের নেতৃত্বেই বরযাত্রীর বহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ হামলা ও স্বর্ণালঙ্কার ছিনতাইয়ের ঘটনায় বকশীগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মাহাবুব আলম বাংলারচিঠিডটকমকে বলেন, ‘মেরুরচরে বরযাত্রীর বহরে হামলার ঘটনা শুনেছি। বরযাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পেলে মামলা দায়ের করে প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

Views 30 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad