সিংহজানি স্কুল রাস্তায় জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের পরিচ্ছন্নতা অভিযান

জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে পরিচালিত পরিচ্ছন্নতা অভিযান। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর ॥
নিরাপদ, পরিচ্ছন্ন ও পরিবেশবান্ধব নগর প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে রাস্তা সংস্কার ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা করেছে নবগঠিত জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজ। সংগঠনটির ধারাবাহিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ১০ আগস্ট সকাল ১০টায় শহরের সিংহজানি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় সড়কে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হয়।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মো. রেজাউল করিম হীরার বাসার সামনে এ অভিযানের উদ্বোধন করেন জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের উপদেষ্টা পরিবেশকর্মী জাহাঙ্গীর সেলিম। সংগঠনটির সংগঠক, সদস্য ও কর্মী এবং স্থানীয় নাগরিকরা যার যার বাসাবাড়ি থেকে কোদাল, শাবল, বেলচা, ঝাড়ু, টুকরিসহ নানা সরঞ্জাম নিয়ে এ অভিযানে অংশ নেন। সিংহজানি সড়কের কাছারিপাড়া ফকিরপাড়া মোড় পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে এবং রাস্তায় পড়ে থাকা পলিথিন ও অন্যান্য আবর্জনা পরিষ্কার এবং খানাখন্দ ভরাট করেন তারা।

জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে পরিচালিত পরিচ্ছন্নতা অভিযান। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

মাটি ও ইটের টুকরার অভাবে পরিপূর্ণভাবে গর্ত ভরাট না করতে পারলেও অভিযানে অংশ নেওয়া পৌরসভার প্রতিনিধিরা ১১ আগস্টের মধ্যে খানাখন্দগুলো ভরাট করে যানবাহন চলাচলের উপযোগী করে দেওয়ার আশ্বাস দেন। অভিযানের সময় রাস্তার দুই পাশের বাসাবাড়ির নারীরা বেরিয়ে এসে পরিচ্ছন্নতায় নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবীদের অভিনন্দন জানান। তারা যেখানে সেখানে আবর্জনা না ফেলারও অঙ্গীকার করেন।

জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে পরিচালিত পরিচ্ছন্নতা অভিযান। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

অভিযানে অন্যান্যের মধ্যে সচেতন নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক মোক্তাদির হোসেন সেলিম, সদস্য সচিব ডা. মনিরুজ্জামান খান, সদস্য মনোয়ারা খানম, মাসুম, মিজানুর রহমান বিদ্যুৎ, তারা, মোরাদ খান, হীরা, পিয়াস, রাজু, নিকেল, হৃদয়, জাকির হোসেন রাসেল, যোবায়ের, অনিকসহ সচেতন নাগরিক সমাজের অর্ধশতাধিক সদস্য অংশ নেন। পৌরসভার একটি গাড়িসহ পরিচ্ছন্নতা কাজে সহায়তা করতে অংশ নেন পৌরসভার প্রতিনিধি হিসাবরক্ষক মো. আসাদুজ্জামান, মঞ্জুসহ একদল পরিচ্ছন্নতাকর্মী।

সচেতন নাগরিক সমাজের এই উদ্যোগের প্রতি সমর্থন ও ধন্যবাদ জানিয়ে জামালপুর পৌরসভার মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি বলেন, নাগরিকরা সচেতন হলে পৌরসভার ওপর চাপ অনেকাংশে কমে যাবে। তিনি আশ্বাস দিয়ে বলেন প্রতিটি বাড়ির ময়লা আবর্জনাগুলো নির্দিষ্ট স্থানে রাখলে পৌরসভার গাড়ি এসে যথাসময়ে নিয়ে যাবেন। প্রতিটি পাড়ায় মহল্লায় এ ধরনের নাগরিক সমাজের সংগঠন গড়ে উঠলে এবং সামাজিক কাজ শুরু করলে সত্যিই সমাজটা বদলে যাবে।

জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে পরিচালিত পরিচ্ছন্ন অভিযানে অংশগ্রহণকারী সদস্যবৃন্দ। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

উল্লেখ, এর আগের সপ্তাহে সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। সমাবেশের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জামালপুর পৌরসভার মেয়রের বক্তব্যের প্রতিফলন ঘটতে শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে কাছারিপাড়া থেকে কাছারি শাহি জামে মসজিদের সংযোগ রাস্ত, সংস্কার ও ড্রেন পরিষ্কার কাজ শুরু হয়েছে।

Views 59   ফেসবুকে শেয়ার করুন!
সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad