দেওয়ানগঞ্জে মৎস বিভাগের সাংবাদিক সম্মেলন

সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মৎস কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ জুলাই সকালে উপজেলা মৎস অধিদপ্তরের আয়োজনে সরকারি গণগ্রন্থাগার মিলনায়তনের এ সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সম্মেলনে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান লিখিত বক্তব্যে জানান, বাংলাদেশ এখন মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে মাছ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪০ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন। মাছ উৎপাদন হয়েছে ৪১ লাখ ৩৪ হাজার মেট্রিক টন। ১৯৮৩-৮৪ অর্থ বছরে মাছের মোট উৎপাদন ছিল ৭ লাখ ৫৪ হাজার মেট্রিক টন। ৩৩ বছরের ব্যবধানে ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে এই উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৪১ লাখ ৩৪ হাজার মেট্রিক টন। অল্প সময়ের ব্যবধানে মোট মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় সাড়ে ৫ গুণ। সরকারের বাস্তবমুখী কার্যক্রমের ফলে বাংলাদেশ এখন মাছ ও মাংস উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে।

তিনি আরো জানান, সারাবিশ্বে প্রাকৃতিক উৎস থেকে মোট ৯০ লাখ টন মাছ উৎপাদন হয়। যেখানে বাংলাদেশে উৎপাদন হয় ১০ লাখ টন। দেশি প্রজাতির মাছের উন্নত জাত উদ্ভাবনের মাধ্যমে বাংলাদেশে মাছ উৎপাদন বেড়েই চলছে। ইলিশের প্রজন্ম মৌসুমে নদীতে জাটকা নিধন বন্ধে ও মা ইলিশ রক্ষার মাধ্যমে ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। বাংলাদেশের মানুষের মাছ খাওয়ার পরিমাণও বেড়েছে। আগে জনপ্রতি প্রতিদিন গড়ে ৬০ গ্রাম মাছ খেত এখন তা বেড়ে দাড়িয়েছে ৬২.৫৮ গ্রাম।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিস সহকারী আরজুদু জামান, সাংবাদিক রেজাউল করিম এলান, খাদেমুল ইসলাম, মদন মোহন ঘোষ, বিল্লাল হোসেন মন্ডল প্রমুখ।

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad