সরিষাবাড়ীতে বিএনপি প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাঙচুর

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, জামালপুর
বাংলারচিঠি ডটকম

জামালপুর-৪ (সরিষাবাড়ী) আসনে বিএনপি দলীয় ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো. ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীমের প্রচার মাইক ও ইজিবাইক ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১০ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে চারটার দিকে স্থানীয় যুবলীগের কর্মীরা সরিষাবাড়ী পৌরসভার শিমলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটায়।

এ আসনের বিএনপি দলীয় প্রার্থী মো. ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম বাংলারচিঠি ডটকমকে জানান, ১০ ডিসেম্বর ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর বিকেলে তিনি দুটি ইজিবাইকে করে নির্বাচনী প্রচার মাইক নামান। একটি ইজিবাইক সরিষাবাড়ী পৌরসভার শিমলা বাজার এলাকায় প্রধান সড়কে ধানের শীষ প্রতীকের প্রচারণা চালাচ্ছিল। এ সময় স্থানীয় যুবলীগকর্মী মনোয়ার হোসেন ও মুকুল মিয়া ইজিবাইকটি আটক করে। তারা ইজিবাইকের চালক লাভলুকে ভয়ভীতি দেখায় এবং মারধর করে তার মোবাইল ফোন সেট ছিনিয়ে নেয়। এক পর্যায়ে তারা একটি প্রচার মাইক ও দুটি হর্নসহ ইজিবাইকটি ভাঙচুর করে দ্রুত কেটে পড়ে।

তিনি আরো জানান, তার নির্বাচনী প্রচার মাইক ভাঙচুর করার ঘটনাটি রিটার্নিং কর্মকর্তা, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সরিষাবাড়ী থানার ওসিকে মৌখিকভাবে অবহিত করে এ ঘটনার আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম আশরাফুল ইসলাম বিএনপি দলীয় প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাঙচুর প্রসঙ্গে বাংলারচিঠি ডটকমকে বলেন, ‘বিএনপি দলীয় প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাঙচুর হয়েছে কিনা তা আমার জানা নেই। তবে মনোয়ার হোসেন ও মুকুল মিয়া নামে যে দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে তারা যুবলীগের কেউ নয়।’

এদিকে সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজেদুর রহমান বাংলারচিঠি ডটকমকে বলেন, ‘শিমলা বাজার এলাকায় বিএনপি প্রার্থীর প্রচার মাইক ভাঙচুরের খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গেলেও হামলাকারী কাউকে আটক করা যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে ক্ষতিগ্রস্ত মাইক ও হর্ন জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad