মেলান্দহে মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলীকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

মুক্তিযোদ্ধা মো. হোসেন আলী

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর ॥
জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার দুরমুঠ ইউনিয়নের যোদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য মো. হোসেন আলী আর নেই। ১২ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ঢাকায় বিআরডিবি অফিসার্স কোয়ার্টারে তাঁর ছেলে আনিসুর রহমান জুয়েলের বাসায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না লিল্লাহি রাজিউন)। তাঁর বয়স হয়েছিল আনুমানিক ৭৫ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও ৪ ছেলেসহ অনেক আত্মীয়স্বজন রেখে গেছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ১৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে মরহুম মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলীর মরদেহ ঢাকা থেকে তাঁর গ্রামের বাড়ি জেলার মেলান্দহ উপজেলার দুরমুঠ ইউনিয়নে নেয়া হয়। পরে আছর নামাজের পর দুরমুঠ মাজার সংলগ্ন স্থানে প্রথমে মেলান্দহ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মেলান্দহের ইউএনও তামিম আল ইয়ামিন রাষ্ট্রীয় সালাম প্রদর্শন করে তাকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় মেলান্দহের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ডার হারুন অর রশিদ, সাবেক কমাণ্ডার আব্দুস ছামাদ ও দুরমুঠ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অপু মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

এরপর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ঘাটাইলের শহীদ সালাহ উদ্দিন সেনানিবাসের জিওসির প্রতিনিধি একজন সেনাকর্মকর্তার নেতৃত্বে একটি দল মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলীর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন। পরে মাগরিবের নামাজের পর দুরমুঠ মাজার সংলগ্ন স্থানে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

মরহুমের শ্যালক এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজ টিভি চ্যানেলের ঢাকাস্থ প্রধান কার্যালয়ের নির্বাহী আর্কাইভ ফিরোজ আলম এ প্রতিবেদককে জানান, তার দুলাভাই মুক্তিযোদ্ধা মো. হোসেন আলী অসুস্থ ছিলেন না। কিন্তু ১২ সেপ্টেম্বর রাতে আকস্মিক তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তিনি তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করার জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

Views 43   ফেসবুকে শেয়ার করুন!
সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad