সরিষাবাড়ীতে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে ইউপি চেয়ারম্যানসহ আহত ১০

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগ নেতা উম্মত আলী। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

মমিনুল ইসলাম কিসমত, সরিষাবাড়ী ॥
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলায় জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, বাড়িঘরে হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ অন্তত ১০জন আহত হয়েছে। ২৬ আগস্ট বিকেলে উপজেলা সাতপোয়া ইউনিয়নের চর সরিষাবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সাতপোয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক উম্মত আলী চর সরিষাবাড়ী গ্রামের বিরোধপূর্ণ একটি জমিতে গত মাসে চাষাবাদ করতে গেলে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিমের ভাতিজা রেজাউল ইসলামের মধ্যে মারামারি হয়। এ নিয়ে উভয়পক্ষে বিরোধ চলে আসছিল। এদিকে ২৬ আগস্ট বিকেলে উম্মত আলী তার নাতিকে নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে চর সরিষাবাড়ী খেঁয়াঘাটের কাছে পৌঁছামাত্র রেজাউল তার লোকজন নিয়ে উম্মতের উপর হামলা চালায়। পরে তারা উম্মতের বসতবাড়িতে গিয়ে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষে সংঘর্ষ হলে অন্তত ১০জন আহত হয়। গুরুতর আহত উম্মত আলী, তার স্ত্রী সেলিনা খাতুন, ফয়েজুর রহমান ও সজলকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় উম্মত আলীকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এদিকে বিরোধ নিষ্পত্তি করার দায়িত্ব নিয়ে না করায় ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহেরের উপর ক্ষিপ্ত হয় এলাকাবাসী। সন্ধ্যায় তিনি আহতদের দেখতে হাসপাতালে গেলে উম্মত আলীর লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহেরকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ মোহব্বত কবির বাংলার চিঠি ডটকমকে বলেন, ‘এ ঘটনায় হাসপাতাল এলাকায় পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’

Views 49   ফেসবুকে শেয়ার করুন!
সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad