দেশসেরা তরুণ উদ্ভাবক জামালপুরের তৌহিদের মালয়েশিয়া জয়

গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত তরুণ উদ্ভাবক তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ। ছবি : বাংলারচিঠি ডটকম
গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত তরুণ উদ্ভাবক তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ। ছবি : বাংলারচিঠি ডটকম

আমাদের সোনার ছেলে তৌহিদ মালেশিয়া বিজ্ঞান মেলায় অংশগ্রহণ করে শ্রেষ্ঠত্ব লাভ করে সোনা জয় করেছে। তরুণ এই দেশসেরা উদ্ভাবকের মালয়েশিয়া জয় শুধু জামালপুরের জন্য নয় গোটা দেশের গৌরব বয়ে এনেছে। পলিথিন বর্জ্য থেকে জ্বালানি ও মূল্যবান বস্তু উৎপাদনের পাশপাশি জলাবদ্ধতার অন্যতম কারণ পলিথিন মুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করাই তার স্বপ্ন। আমরা তার স্বপ্ন বুনন থেকে ফসল ঘরে তোলা পর্যন্ত পাশে আছি। তৌহিদ জামালপুর তথা দেশবাসীর নিকট দোয়া চেয়েছে। আমরা সবাই ওর সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকার জন্য মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট প্রার্থনা করছি।

উল্লেখ, জামালপুরের বিস্ময় বালক তৌহিদ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রোগ্রাম কর্তৃক আয়োজিত ‘উদ্ভাবনের খোঁজে বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ৪০ হাজার প্রতিযোগীকে পিছনে ফেলে প্রথম হয়েছে। বিজয় মুকুট নিয়ে এখন দেশের সীমানা পেরিয়ে সাফল্যের মুকুটে যুক্ত করছে সোনালী পালক।

একজন নিম্নমধবিত্ত ঘরের সন্তান তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত পড়ালেখা করে শুধুমাত্র অধ্যাবসায় আর সাধনার ফলে বিস্ময়কর আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছে। আমার অতি স্নেহভাজন এই ছেলেটি চতুর্থ শ্রেণি পড়া অবস্থায় সৃষ্টিশীল চর্চা শুরু করে। আজ পর্যন্ত সে তার আশাভরা যাত্রাপথ থেকে নানা প্রতিকূলতার পরেও সরে যায়নি। নানাভাবে লাঞ্ছিত হয়েছে। মূর্খদের কাছ থেকে তিরষ্কার পেয়েছে কিন্তু এগিয়ে যাবার পথে কোনো বাধাই তাকে আটকাতে পারেনি।

তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদের গোল্ড মেডেল। ছবি : বাংলারচিঠি ডটকম
তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদের গোল্ড মেডেল। ছবি : বাংলারচিঠি ডটকম

তৌহিদ তার সাধনায় অবিচল থেকে আজ দেশ থেকে শুরু করে বিদেশে গিয়ে পুরস্কার গ্রহণ করছে। এ শুধু তার ব্যক্তিগত অর্জন নয় গোটা দেশের জন্য সুনাম বয়ে নিয়ে এসেছে আজ। আমরা তার জন্য গর্ববোধ করছি। নতুন কিছু আবিষ্কার এবং আবিষ্কৃত জ্বালানি উৎপাদনে দেশে ফিরেই কাজ শুরু করবে বলে আমরা আশা করছি। অবশ্য এখন তার আর একক সিদ্ধান্তে কিছু করার নাই। রাষ্ট্রিয় সিদ্ধান্তের বাইরে সে এক কদম পথ চলতে পারবে না। তাই স্থানীয় ও কেন্দ্রিয় সরকারের কাছে অনুরোধ করছি অনতিবিলম্বে উৎপাদন কর্মকাণ্ড শুরু করার জন্য।

জয় হোক তৌহিদের জয় হোক বাংলাদেশের।

জাহাঙ্গীর সেলিম
সম্পাদক