স্কুল ৩৬০ ডিগ্রি সফটওয়্যারের পুরস্কার লাভ

অতিথিদের সাথে ডেফোডিল আইসিটি কার্নিভালে বিজয়ী দশটি প্রকল্পের নির্মাতারা। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

ডেফোডিল আইসিটি কার্নিভাল ২০১৯- এ দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে স্কুল ৩৬০ ডিগ্রি নামক ডেটা ড্রাইভেন স্কুল অটোমেশন সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যারটির মূল নির্মাতা বিশ্ববিদ্যালয়টির সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থী সাজ্জাদুর রহমান সম্রাট। তার বাড়ি জামালপুর পৌরসভার পাথালিয়া এলাকায়। ২৬ অক্টোবর ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস আশুলিয়ায় দিনব্যাপী এক অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়।

কার্নিভালের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য এবং গবেষণা ও প্রকাশনা বিভাগের কর্মকর্তা অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান। ভিসি অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল পরিবারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূরুজ্জামান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুব উল হক মজুমদার, স্থায়ী ক্যাম্পাসের ডিন প্রফেসর ড. মোস্তফা কামাল, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. সৈয়দ আকতার হোসেন, সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান ড. তৌহিদ ভূঁইয়া, মাল্টিমিডিয়া অ্যান্ড ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি বিভাগের প্রধান ড. শেখ মোহাম্মদ আলায়ার, কম্পিউটিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের প্রধান সরোয়ার হোসেন মোল্লা প্রমুখ।

কার্নিভালে প্রদর্শিত হয় তিনশর বেশি প্রকল্প। এর মধ্যে সেরা দশটি প্রকল্পকে মোট ২০ লাখ টাকার পুরস্কার প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কার্নিভালে সেরা দশের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেছে সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘স্মার্ট হোম অটোমেশন সিস্টেম’। তাদের দলের সদস্যরা হলেন আব্দুল্লাহ আল ইয়ামিন, সামসুজ্জামান মিয়া ও প্রসেঞ্জিৎ বৈরাগী। দ্বিতীয় হয়েছে সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থীদেরই অপর একটি প্রকল্প ‘স্কুল ৩৬০ ডিগ্রি’।এটি হচ্ছে ডেটা ড্রাইভেন স্কুল অটোমেশন সফটওয়্যার। এর মূল নির্মাতা হলেন সাজ্জাদুর রহমান। এ প্রকল্পের অন্যান্য সদস্যরা হলেন রাকিবুল ইসলাম ও বোরহান উদ্দিন।

পুরস্কার হাতে সফটওয়্যার নির্মাতা সাজাদুর রহমান সম্রাট। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

এছাড়াও তৃতীয় থেকে ১০ম স্থান পর্যন্ত যথাক্রমে রয়েছে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘রিমোট ডক্টর’, সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘সয়েল মনিটরিং সিস্টেম’, সিএসই বিভাগের (স্থায়ী ক্যাম্পাস) শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘ডিআইইউ ক্যাম্পাস গাইড, বাংলাদেশ স্কিল ডেভলপমেন্ট ইনস্টিটিউট ও ড্যাফোডিল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘অটো কনট্রোলিং পোলট্রি, কম্পিউটিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘অকশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম, কম্পিউটিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের অপর একদল শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘বেকারি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম, বিএসডিআই ও দিপ্তির শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘হ্যাপি হাব, এবং সিএসই বিভাগের (স্থায়ী ক্যাম্পাস) শিক্ষার্থীদের প্রকল্প ‘স্মাট ফার্ম থ্রো আইওটি’।

স্কুল ৩৬০ ডিগ্রি সফটওয়্যারটির মূল নির্মাতা সাজ্জাদুর রহমান বাংলারচিঠিডটকমকে বলেন, এই সফটওয়্যারটি আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাপনা অনেক সহজ করে ফেলবে। সফটওয়্যারটির ব্যবহার সকল স্কুল ও কলেজে শুরু করা সম্ভব হলে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার অনেক সমস্যারই সমাধান সম্ভব। আগামীতে মেশিন লার্নিং প্রযুক্তির মাধ্যমে এই সফটওয়্যারটি শিক্ষা পলিসি মেকারদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহায়তা করবে। দ্বিতীয় স্থান অর্জন করলেও দর্শকদের মূল আকর্ষণ ছিল স্কুল ৩৬০ ডিগ্রি কে নিয়ে। সফটওয়্যারটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে school360.net ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad