ইসলামপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মৎসচাষীদের মাথায় হাত

বন্যায় ইসলামপুর উপজেলার প্রায় দুই হাজার পুকুরের মাছ রাতারাতি বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। ছবি : লিয়াকত হোসাইন লায়ন

ইসলামপুর (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

উজানের ঢলের পানি এবং টানা বর্ষণে সৃষ্টি বন্যায় জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় অতিতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। ফলে উপজেলার তিনলাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এদিকে উপজেলার প্রায় দুই হাজার পুকুরের মাছ রাতারাতি বন্যার পানিতে ভেসে গিয়ে মৎসচাষীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। একদিকে নিজ বাড়িঘর, আবাদী জমির ফসল অন্যদিকে ব্যবসার পুঁজি সকল কিছুই ভয়াবহ বন্যায় ভেসে যাওয়ায় একাধিক চাষী হতাশা প্রকাশ করেছে।

দুরমুট খুদিয়াকান্দা গ্রামে প্রতিষ্ঠিত লিক্সরা ফিসারিজ ফার্মের মালিক মাহবুবা নাছরিন বলেন, নিজে আত্মনির্ভরশীল হওয়ার জন্য ২০১৬ সালে ২০ একর জমি ভাড়া নিয়ে শুরু করি। হঠাৎ ২০১৭ সালে বন্যায় সকল মাছ রাতারাতি বন্যায় ডুবে যাওয়ায় প্রায় ৬০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়। ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পড়েও আবারো শুরু করলেও এবারের রাতারাতি ডুবে যাওয়ায় প্রায় ৭৫ লাখ টাকার মাছ ভেসে যায়।

এছাড়াও পাথর্শী ইউনিয়নের মোজাআটা গ্রামের শফিকুল ইসলাম, রসুল মিয়া, সদর ইউনিয়নের ইলিয়াছ আলী, ছামিউল হক, বেলগাছা ইউনিয়নের আব্বাস আলী, চিনাডুলী ইউনিয়নের ফারুক মিয়া, আক্কাস আলী, আব্দুল আজিজ, নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের রেজাউল করিম, সোনাহার হোসেনসহ উপজেলার মৎস্যচাষীরা তাদের বুকফাটা আর্তনাদ জানিয়েছেন। তারা মৎস্যচাষীদের ক্ষতিগ্রস্তের হাত থেকে রক্ষা করতে সরকার প্রধানের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad