বালির বস্তা দিয়ে যাতায়াতের পথ বানাল স্থানীয়রা

বালির বস্তা দিয়ে যাতায়াতের ব্যবস্থা করছে স্থানীয়রা। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরে বালির বস্তা ফেলে যাতায়াতের পথ তৈরি করল স্থানীয়রা। স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকদের উদ্যোগে দুই দিনে রাস্তাটির পাশে বালির বস্তা ফেলে চলাচলের উপযোগী করা হয়।

বগাবাইদ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আজিমুন্নহার শেলী জানান, পৌর এলাকার বগাবাইদ গ্রামের মূল রাস্তাটি বর্ষা এলেই পানির নিচে তলিয়ে যায়। গত ৫ বছর যাবত বর্ষার পানিতে রাস্তাটি তলিয়ে থাকায় বিভিন্ন স্থানে খানাখন্দ তৈরি হয়েছে। বগাবাইদ ও মাইনপুর গ্রামের প্রায় ৫ হাজার মানুষ এই রাস্তাটি ব্যবহার করে। ব্যবহার অনুপযোগী হওয়ায় রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয় সাধারণ মানুষদের।

সমাজকর্মী আরিফুল ইসলাম বলেন, প্রায় ৬০০ মিটার রাস্তা সম্পূর্ণ ব্যবহার অযোগ্য হয়ে পড়েছে। স্থানীয় যুবকদের সহযোগিতায় ভোগান্তি কিছুটা লাঘব করতে দুই দিনে রাস্তার পাশে বালির বস্তা ফেলে চলাচলের ব্যবস্থা করা হয়। ফুয়াদ আহমেদ ফাহিম, নির্জন ইসলাম, শেখর সিরাজ, শাওন আহম্মেদ, তরিফুল ইসলাম তরিফসহ প্রায় বিশ জন স্বেচ্ছাসেবক এই কাজে অংশ নেয়।

বালির বস্তা দিয়ে যাতায়াতের এই পথ তৈরি করেছে স্থানীয়রা। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

১১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম আমীর বলেন, এই এলাকার মানুষ দীর্ঘদিন থেকে দুর্ভোগে আছে। রাস্তার দুই পাশে ড্রেনসহ ঢালাই করে রাস্তাটি নির্মাণ করা হলে স্বস্তি ফিরে আসবে।

ওয়ার্ড কাউন্সিল রাকিব হাসান রাজু জানান, ইতিমধ্যে পৌরসভার বিভিন্ন রাস্তার সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। আগামী অক্টোবর মাসে বগাবাইদের এই রাস্তাটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে। রাস্তাটি সংস্কার হলে এলাকাবাসীর আর কষ্ট থাকবে না।

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad