জামালপুরে আইফোন সেট চুরি করে র‌্যাবের হাতে ধরা এক নারী

র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার জেসমিন আক্তার। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর ॥
দামি আইফোন সেট ও ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি করে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েছেন এক নারী চোর। জামালপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান থেকে ওগুলো চুরি হয়েছিল। ২৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে র‌্যাবের জামালপুর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহফুজুর রহমানের নেতৃত্বে র‌্যাবের অভিযানে ওই নারী চোরকে গ্রেপ্তার করে আইফোন সেট ও ভ্যানিটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়। পরে আইফোন সেটের মালিককে তা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

গ্রেপ্তার ওই নারীর নাম জেসমিন আক্তার। তার বয়স আনুমানিক ৩৫ বছর। জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার মহিরামকুল গ্রামের ফজলু শেখের মেয়ে তিনি। তিনি জামালপুর শহরের মিয়াপাড়া চামড়াগুদাম এলাকায় মুকুল মিয়ার বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকেন। র‌্যাবের অভিযানে চামড়াগুদাম এলাকায় তার ওই ভাড়া বাসা থেকেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অভিযোগে জানা গেছে, জামালপুর শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী মো. এনামুল হক তালুকদার রিপনের স্ত্রী দিলশাদ বেগম ২৪ আগস্টের আগে একদিন গিয়েছিলেন জামালপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এক পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানের এক ফাঁকে দিলশাদ বেগম তার বন্ধুদের সাথে অন্য একটি মুঠোফোনে সেলফি তোলার জন্য তার হাতে থাকা বিস্কুট ও কফি রঙ্গের ভ্যানিটি ব্যাগটি পাশেই রাখেন। পরবর্তীতে সেলফি তোলা শেষে দেখেন তার ভ্যানিটি ব্যাগটি নেই। ওই ব্যাগে ৮৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি অত্যাধুনিক আইফোন সেট, একটি জাতীয় পরিচয়পত্র এবং ব্র্যাক ব্যাংকের একটি ডেবিট কার্ড ছিল।

দিলশাদ বেগমের স্বামী মো. এনামুল হক তালুকদার রিপন ২৪ আগস্ট এ ব্যাপারে র‌্যাবের জামালপুর ক্যাম্পে অভিযোগ করেন। পরদিন ২৫ আগস্ট জামালপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করেন তিনি। এর প্রেক্ষিতে র‌্যাবের একটি দল দীর্ঘ এক মাস পর আইফোন সেট চোর জেসমিন আক্তারকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। গ্রেপ্তারের পর র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে জেসমিন আক্তার কিভাবে আইফোনসেটসহ ভ্যানিটি ব্যাগটি চুরি করেছিল তার বর্ণনা দিয়েছেন। একই সাথে উদ্ধার করা আইফোন সেট, একটি জাতীয় পরিচয়পত্র, ব্র্যাক ব্যাংকের একটি ডেবিট কার্ড ও ভ্যানিটি ব্যাগটির প্রকৃত মালিক এনামুল হক তালুকদার রিপন ও দিলশাদ দম্পতিকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

র‌্যাব সূত্রে জানানো হয়েছে, এ ঘটনায় যেহেতু জামালপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা ছিল, তাই গ্রেপ্তার জেসমিন আক্তারকে জামালপুর সদর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোহাম্মদ রাশেদুল হাসান এ প্রসঙ্গে বাংলার চিঠি ডটকমকে বলেন, আইফোন সেট চুরির অভিযোগে গ্রেপ্তার জেসমিন আক্তারকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। ২৯ সেপ্টেম্বর সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জামালপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Views 44   ফেসবুকে শেয়ার করুন!
সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad