সরিষাবাড়ীতে গৃহবধূর আত্মহত্যা, স্বামী পলাতক

মমিনুল ইসলাম কিসমত, সরিষাবাড়ী ॥
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নে চায়না বেগম (১৯) নামে এক গৃহবধূ বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ৪ সেপ্টেম্বর বিকেলে উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ভাটারা দক্ষিণ পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তিনি পৌরসভার চর বাঙ্গালী গ্রামের মৃত জবান আলীর মেয়ে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ভাটারা ইউনিয়নের ভাটারা দক্ষিণ পাড়া গ্রামের দরিদ্র কৃষকের ছেলে ইয়ামিনের সাথে নয় মাস আগে চায়না বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের দাগ মুছতে না মুছতেই স্বামীর পরিবারের সাথে অভ্যন্তরীন দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে চায়না বেগম। এক পর্যায়ে ৪ সেপ্টেম্বর দুপুরে চায়না বেগম বিষ পান করলে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে প্রতিবেশীরা তাকে সরিষাবাড়ী হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক চায়নার অবস্থা গুরুতর দেখে তাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করে। জামালপুরে আনার পথে চায়না বেগম মারা যান। পরে পুলিশ খবর পেয়ে চায়না বেগমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চায়না বেগমের লাশ থানাতেই রয়েছে। এ ঘটনায় নিহত চায়না বেগমের স্বামীসহ ওই বাড়ির সকলেই পলাতক রয়েছে।

এ ঘটনায় সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজেদুর রহমান জানান, পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে চায়না বেগম বিষ ক্রিয়ায় মারা গেছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে আরো বিস্তারিত জানা যাবে বলে তিনি জানান।

sarkar furniture Ad
Green House Ad