উইলিয়াম এবং কেট আট বছর পর প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন

বাংলারচিঠিডটকম ডেস্ক ❑ প্রিন্স উইলিয়াম এবং তার স্ত্রী কেট আট বছরের মধ্যে তাদের প্রথম সফর হিসেবে এই সপ্তাহে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন। ওয়েলসের রাজকুমার এবং রাজকুমারী হিসেবে জনপ্রিয় দম্পতির এটা প্রথম সফর।

উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর বোস্টনে তিন দিনের সফর শুক্রবার সন্ধ্যায় জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় উদ্যোগের জন্য ‘উইলিয়ামের আর্থশট’ পুরস্কার একটি তারকা খচিত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শেষ হয়।

পুরষ্কার অনুষ্ঠানে রাজকীয় অভ্যন্তরীণ ব্যক্তিরা উইলিয়ামের ‘সুপারবোল মুহূর্ত’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। দ্বিতীয় বারের মতো পাঁচজন উদ্ভাবকের প্রত্যেককে ১ মিলিয়ন ইউরো পুরস্কৃত করেছেন।

বোস্টনের এমজিএম মিউজিক হলে গায়ক বিলি ইলিশ এবং অ্যানি লেনক্স, বোন ক্লো এক্স হ্যালে এবং অভিনেতা রামি মালেকসহ অনেক তারকাদের উপস্থিতি ছিল প্রত্যাশিত।

গত বছরের মতো ব্রিটিশ প্রকৃতিবিদ এবং টেলিভিশন উপস্থাপক ডেভিড অ্যাটেনবরো, বিচারক প্যানেলে থাকা অভিনেত্রী কেট ব্ল্যানচেটের পাশাপাশি অবদান রাখবেন।

৪০ বছর বয়সী উইলিয়াম সেপ্টেম্বরে সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হওয়ার পর থেকে এই সফরটি সবচেয়ে হাই-প্রোফাইল। যখন তার পিতা রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্থলাভিষিক্ত হয়ে রাজা চার্লস তৃতীয় হন।

নতুন রাজা শীঘ্রই তার জ্যেষ্ঠ পুত্রকে ওয়েলসের রাজপুত্র বানিয়েছিলেন। ১৩শ’ শতাব্দী থেকে উত্তরাধিকারীর ঐতিহ্যবাহী উপাধিটি দৃশ্যমান হয়।

ওয়েলসের শেষ রাজকুমারী ছিলেন উইলিয়ামের মা প্রিন্সেস ডায়ানা।

বোস্টনে এই দম্পতি শহরের মেয়র মিশেল উ-এর সাথে দেখা করবেন এবং সাবেক প্রেসিডেন্টের কন্যা ক্যারোলিনের সাথে জন এফ কেনেডি প্রেসিডেন্সিয়াল লাইব্রেরি ও মিউজিয়াম পরিদর্শন করবেন।
ক্যারোলিন কেনেডি বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় ওয়াশিংটনের শীর্ষ দূত।

অন্যান্য ব্যস্ততার মধ্যে রয়েছে উত্তর আটলান্টিক উপকূলে শহরে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির বিষয়ে স্থানীয় কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করা।

তারা সুবিধাবঞ্চিত তরুণদের সাথে কাজ করা দাতব্য সংস্থা এবং সবুজ প্রযুক্তিতে বিশেষজ্ঞ একটি পরীক্ষাগার ও পরিদর্শন করবেন।

কেট এবং উইলিয়ামের চার থেকে নয় বছর বয়সী তিনটি সন্তান রয়েছে। তিনি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে যাবেন।

sarkar furniture Ad
Green House Ad