ইরান ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ বাড়াচ্ছে : আইএইএ

বাংলারচিঠিডটকম ডেস্ক ❑ জাতিসংঘ পরমাণু পর্যবেক্ষণ সংস্থা ২২ নভেম্বর নিশ্চিত করে বলেছে, বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর সাথে পরমাণু চুক্তি ভেঙ্গে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে ইরান তাদের ফোর্দো প্ল্যান্টে সর্বোচ্চ ৬০ শতাংশ পর্যন্ত ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ শুরু করেছে।

এএফপি’র কাছে পাঠানো আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার (আইএইএ) এক বিবৃতিতে বলা হয়, সদস্য দেশগুলোর কাছে সর্বশেষ প্রতিবেদনে মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসি বলেন, ইরান ‘ফোর্দো ফুয়েল এনরিচমেন্ট প্ল্যান্টে (এফএফইপি) উচ্চ সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদন শুরু করেছে।’

আইএইএ বলেছে, এই উৎপাদন ছাড়াও ২০২১ সালের এপ্রিলের পর নাটাঞ্জে এ ধরনের ইউরেনিয়াম উৎপাদন করা হয়।

সংস্থাটি আরো জানায়, ইরান ‘ফোর্দোতে কম সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনের একটি উল্লেখযোগ্য সম্প্রসারণে পরিকল্পনা করেছে। এক্ষেত্রে তারা সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ বা সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ পর্যন্ত ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করেছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, আইএইএ ইরানকে তাদের যাচাইকরণ কার্যক্রমের ফ্রিকোয়েন্সি এবং তীব্রতা বাড়ানোর অভিপ্রায় সম্পর্কে জানাবে।

আইএইএ জানায়, নাতাঞ্জের আরেকটি প্ল্যান্টে ইরান তাদের সমৃদ্ধরণ কার্যক্রমকে এগিয়ে নিচ্ছে এবং এখন সেখানে দ্বিতীয় একটি উৎপাদন ভবন স্থাপনের পরিকল্পনা করছে।

এদিকে ইরান মঙ্গলবার জানায়, তারা ফোর্দোতে ৬০ শতাংশ সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদন শুরু করেছে। ফোর্দো হচ্ছে একটি ভূগর্ভস্থ স্থাপনা যা তিন বছর আগে পুনরায় চালু করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়াা ঘোষণা দিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে নতুন করে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এর জবাবে ইরান পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে তাদের পরমাণু কর্মসূচি জোরদার করতে শুরু করে।

একটি পারমাণবিক বোমা তৈরির জন্য ৯০ শতাংশ ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করা প্রয়োজন এবং ৬০ শতাংশ হচ্ছে অস্ত্র-গ্রেড সমৃদ্ধকরণের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

ইরান বরাবর পারমাণবিক বোমা তৈরির উচ্চাকাঙ্ক্ষার কথা অস্বীর করে আসছে। এ ব্যাপারে ইরান জোর দিয়ে বলে আসছে যে তারা কেবলমাত্র বেসামরিক উদ্দেশ্যে নিয়ে তাদের পারমাণবিক কার্যক্রম চালাচ্ছে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad