রাশিয়ার শাস্তি দাবি জেলানস্কির

বাংলারচিঠিডটকম ডেস্ক ❑ ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলানস্কি তার দেশে আগ্রাসন চালানোয় রাশিয়ার শাস্তি দাবি করেছেন। ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে দেওয়া ভিডিও ভাষণে তিনি এ দাবি জানান। খবর এএফপি’র।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের চলমান অধিবেশনে একমাত্র জেলানস্কিকেই ভার্চ্যুয়ালি ভাষণ দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। তিনি তার ভিডিও ভাষণে রাশিয়ার আগ্রসন প্রশ্নে মস্কোর ১৫ বার শাস্তির কথাটি উল্লেখ করেন।

জেলানস্কি ইংরেজিতে ভাষণ দেন। তার ভাষণটি আগে রেকর্ড করা ছিল। ওই ভাষণে জেলানস্কি বলেন, ‘আমাদের ভূখ- চুরির চেষ্টার জন্য ইউক্রেন রাশিয়ার শাস্তি দাবি করে। হাজারো মানুষ হত্যার এবং নারী-পুরুষদের নির্যাতন-অপদস্থের জন্য শাস্তি দাবি করে।’

তিনি তার সুপরিচিত সবুজ সামরিক টি-শার্ট পরে ভাষণ দেন। এ সময় সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে থাকা বিশ্ব নেতারা দাঁড়িয়ে তাকে সম্মান দেখান, যা একেবারে বিরল। মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপের দুই বছর পর ফের সরাসরি অংশগ্রহণে এই অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রাশিয়াকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে জেলানস্কি একটি বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এটি হবে সম্ভাব্য সকল আক্রমণকারীদের জন্য একটি সতর্কবার্তা।

রাশিয়ার আগ্রাসনের শিকার হওয়ার জন্য ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ক্ষতিপূরণও দাবি করেন। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, রাশিয়াকে তার নিজের দেশের সম্পদ দিয়ে ক্ষতিপূরণের এই অর্থ দেওয়া উচিত।

ইউক্রেন যুদ্ধের ফলাফল পক্ষে আনতে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন রিজার্ভ সৈন্য ডাকার নির্দেশ এবং প্রয়োজনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুমকি দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর জেলানস্কি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে তার ভাষণ দিলেন।

sarkar furniture Ad
Green House Ad