শেরপুরে স্ত্রী নির্যাতন মামলায় পুলিশ সদস্যের কারাদণ্ড

সুজন সেন, নিজস্ব প্রতিবেদক, শেরপুর, বাংলারচিঠিডটকম: শেরপুরে যৌতুক আদায়ে ব্যর্থ হয়ে স্ত্রীকে নির্যাতনের এক মামলায় আল-আমিন (৩০) নামে এক পুলিশ কনস্টেবল স্বামীকে এক বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ২২ আগস্ট দুপুরে শেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আখতারুজ্জামান ওই দণ্ড দেন।

এ সময় আল-আমিন আদালতে উপস্থিতত ছিলেন।

দণ্ড পাওয়া আল-আমিন নকলা উপজেলার পশ্চিম নকলা এলাকার মৃত আক্কাছ আলীর ছেলে ও ডিএমপিতে কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল।

ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি গোলাম কিবরিয়া বুলু জানান, ২০১৯ সালের ২৪ জুন আল-আমিন কর্মস্থল থেকে ছুটিতে নিজ বাড়িতে ফিরে স্ত্রী মিনারা বেগমের কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। কিন্তু মিনারা মৃত পিতার কষ্টের সংসার থেকে যৌতুকের দাবি পূরণে অস্বীকার করলে আল-আমিন তাকে পিটিয়ে আহত করে। পরে হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে পরদিন থানায় মামলা দিতে ব্যর্থ হয়ে ২৭ জুন আল-আমিন ও তার মা আনোয়ারা বেগমকে আসামি করে ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন মিনারা।

তদন্ত শেষে ২০২০ সালের ১ এপ্রিল একমাত্র আল-আমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে নকলা থানার তৎকালিন এসআই রাজীব ভৌমিক। ওই মামলায় বিচারিক পর্যায়ে ২০২১ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি অভিযোগ গঠন করা হয়।

পরবর্তীতে মামলার বাদী-ভুক্তভোগী, চিকিৎসক ও তদন্ত কর্মকর্তাসহ সাতজন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে চলতি বছরের ১৭ জুলাই উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক গ্রহণ শেষে ২২ আগস্ট এ রায় দেওয়া হয়।

sarkar furniture Ad
Green House Ad