খাজার সেঞ্চুরি ও ব্রডের ফাইফারের পর ইনিংস ঘোষণা অস্ট্রেলিয়ার

বাংলারচিঠিডটকম ডেস্ক ❑ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাশেজের প্রথম তিন টেস্টে না খেললেও, সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে সুযোগ পেয়েই সেঞ্চুরি করলেন অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি ব্যাটার উসমান খাজা। তার সেঞ্চুরিতে ৮ উইকেটে ৪১৬ রান তুলে প্রথম ইনিংস ঘোষনা করেছে অস্ট্রেলিয়া। বল হাতে ইংল্যান্ডের সফল বোলার স্টুয়ার্ট ব্রড। ১০১ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি।

দ্বিতীয় দিন শেষে ৫ ওভার ব্যাট করে বিনা উইকেটে ১৩ রান করেছে ইংল্যান্ড। ১০ উইকেট হাতে নিয়ে এখনো ৪০৩ রানে পিছিয়ে ইংলিশরা।

বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম দিন ৪৬ দশমিক ৫ ওভার ব্যাট করে ৩ উইকেটে ১২৬ রান করেছিলো অস্ট্রেলিয়া। স্টিভ স্মিথ ৬ ও খাজা ৪ রানে অপরাজিত ছিলেন।

ট্রাভিস হেড করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় চতুর্থ টেস্ট খেলার সুযোগ পান খাজা। চতুর্থ উইকেটে স্মিথের সাথে ২৬৩ বলে ১১৫ রান যোগ করেন খাজা। ১৪১ বল খেলে ৫টি চারে ৬৭ রানে থামেন স্মিথ।

তবে টেস্ট ক্যারিয়ারের নবম সেঞ্চুরি তুলে নেন খাজা। ২০১তম বলে তিন অংকে পা দেন তিনি। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারির পর প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পেলেন খাজা। মাঝের সময় ছয় ইনিংস ব্যাট করে হাফ-সেঞ্চুরিরও দেখা পাননি তিনি।

ব্রডের বলে বোল্ড হয়ে ১৩৭ রানে আউট হন খাজা। ২৬০ বল খেলে ১৩টি চার মারেন তিনি। খাজাকে আউট করেই টেস্ট ক্যারিয়ারে ১৯তমবারের মত পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নেন ব্রড। ১৯ ইনিংস পর পাঁচ উইকেট পেলেন তিনি।

খাজার আউটের কিছুক্ষণ পরই ইনিংস ঘোষনা করে অস্ট্রেলিয়া। পরের দিকে অসিদের পক্ষে ক্যামেরুন গ্রিন ৫, অ্যালেক্স ক্যারি ১৩, অধিনায়ক প্যাট কামিন্স ২৪, মিচেল স্টার্ক অপরাজিত ৩৪ ও নাথান লিঁও অপরাজিত ১৬ রান করেন। ব্রড ছাড়াও ইংল্যান্ডের পক্ষে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন এন্ডারসন-উড-অধিনায়ক জো রুট।

দিনের শেষ ভাগে ৫ ওভার ব্যাট করে ইংল্যান্ড। দুই ওপেনার হাসিব হামিদ ও জ্যাক ক্রলি ২ রানে অপরাজিত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
অস্ট্রেলিয়া : ৪১৬/৮ডি, ১৩৪ ওভার (খাজা ১৩৭, স্মিথ ৬৭, ব্রড ৫/১০১)।
ইংল্যান্ড : ১৩/০, ৫ ওভার (হাসিব ২*, ক্রলি ২*)।

sarkar furniture Ad
Green House Ad