জামালপুরে হিজড়া জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন প্রকল্পের অবহিতকরণ

জামালপুরে হিজড়া জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: বাংলারচিঠিডটকম

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর, বাংলারচিঠিডটকম : সমাজের সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে জীবনের ইতিবাচক পরিবর্তনের লক্ষ্যে ৬ ডিসেম্বর জামালপুরে গৃহীত প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জামালপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী মো. মোজাফফর হোসেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামান।

সভায় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মোকলেছুর রহমান, জামালপুর জেলা আইনজীবী সভাপতি আইনজীবী আমান উল্লাহ আকাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সৈয়দ আতিকুর রহমান ছানা, বিএসআরএম এর সিএসআর প্রধান তরিখুল কবীর, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিটুস লরেন্স চিরান, জেলা সমাজসবা কার্যালয়ের উপপরিচালক রাজু আহম্মেদ, জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মাহফুজুর রহমান, জামালপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র ফজলুল হক, উন্নয়ন সংঘের নির্বাহী পরিচালক মো. রফিকুল আলম মোল্লা, তৃতীয়লীঙ্গের প্রতিনিধি দেলু ও আয়নাল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন উন্নয়ন সংঘের মানবসম্পদ উন্নয়ন পরিচালক জাহাঙ্গীর সেলিম এবং ধারণাপত্র উপস্থাপনা করেন প্রকল্প ব্যবস্থাপক লিটন সরকার। অনুষ্ঠান আয়োজন করে উন্নয়ন সংঘ ও বিএসআরএম।

জামালপুরে হিজড়া জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: বাংলারচিঠিডটকম

অনুষ্ঠানে সরকারি, বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিসহ ৭০ জন অংশ নেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেন, বর্তমান সরকার হিজড়া জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে সর্বাত্মক সহায়তা করার জন্য কাজ শুরু করেছে। আগামী দিনে যাতে উন্নয়নের মূলস্রোতধারায় তৃতীয় লীঙ্গের জনগোষ্ঠীকে নিয়ে আসার জন্য সরকারি, বেসরকারি উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য নানামুখী পরিকল্পনা গ্রহণ করছে। তিনি উন্নয়ন সংঘ ও বিএসআরএমকে ধন্যবাদ জানান। বিশেষভাবে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিজড়াদের জীবনমান উন্নয়নে জামালপুরে কার্যক্রম নেয়ার জন্য বিএসআরএম গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যান আলী হোসেন আকবর আলীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

বিশেষ অতিথি জামালপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী মো. মোজাফফর হোসেন বলেন, জামালপুর সদর উপজেলায় ১০০টি ঘরের ব্যবস্থা করতে সক্ষম হয়েছি। তবে এদের আচরণ পরিবর্তনের পাশাপাশি অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে পারলে হিজড়াদের জীবনবঞ্চনা দূর হবে। তাদেরকে পরিবারে সংযুক্ত করে সুরক্ষা দিতে হবে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad