দেওয়ানগঞ্জে ভুয়া সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ উদ্ধার, গ্রেপ্তার ২

ভুয়া সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তার দুই ব্যক্তি। ছবি: বাংলারচিঠিডটকম

বিল্লাল হোসেন মন্ডল, দেওয়ানগঞ্জ প্রতিনিধি, বাংলারচিঠিডটকম: জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় ভুয়া সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ উদ্ধার ও সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রির অভিযোগে আবুল কাশেম ও মোজাম্মেল হক (৬৫) নাকে দুই ব্যক্তিকে আটক করেছেন দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের সদস্যরা।

আবুল কাশেম উপজেলার উত্তর মোয়ামারী গ্রামের সিরাজুল মোল্লার ছেলে ও মোজাম্মেল হক আকন্দ গুডু মাতাব্বর ডাংধরা ইউনিয়নের হারুয়াবাড়ী মধ্যপাড়া গ্রামের জাবেদ আলী আকন্দের ছেলে।

২৪ নভেম্বর রাতে উপজেলার হারুয়াবাড়ী এলাকায় ভুয়া সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রির সময় ইউপি সদস্য আইনাল হকের সহযোগিতায় এলাকাবাসী ওই দুই ব্যক্তিকে আটক করে সানন্দবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে খবর দিলে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে তাদের ভুয়া সহযোগী সনদপত্রসহ আটক করেন।

জানা গেছে. দীর্ঘদিন যাবৎ এ চক্রটি মাসিক ১০ হাজার টাকা ভাতা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সব সুযোগ সুবিধার প্রলোভন দিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রি করে আসছে। উপজেলার সীমান্তবর্তী ডাংধরা ইউনিয়নের হারুয়াবাড়ী মধ্যপাড়া গুচ্ছগ্রামের দুঃস্থ অসহায় বৃদ্ধ নারী পুরুষের কাছ থেকে সাড়ে তিন হাজার টাকা নিয়ে এ ধরনের ভুয়া সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রয় করার অভিযোগ রয়েছে।

মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ মহব্বত কবীর জানান, আটক চক্রটি দীর্ঘদিন যাবৎ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রি করে আসছে। ভুয়া সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা সনদ বিক্রির অভিযোগে তাদের আটক করে ২৫ নভেম্বর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad