নকলায় ফাঁস দিয়ে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

শফিউল আলম লাভলু, নকলা প্রতিনিধি, বাংলারচিঠিডটকম: শেরপুরের নকলা উপজেলায় রিনা বেগম (৩৫) নামের এক গার্মেন্টসকর্মী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ২০ নভেম্বর বিকাল আনুমানিক পৌনে ৫টার দিকে উপজেলার পাঠাকাটা এলাকায় ঘটনা ঘটেছে। তিনি পাঠাকাটা এলাকার আজগর আলীর মেয়ে। নকলা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন এসব তথ্য জানান।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, প্রায় বছর তিন আগে দিনাজপুরে তার বিয়ে হয়। সেখানে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। তারপর পারিবারিক দ্বন্দ্বে তাদের মধ্যে তালাক হয়ে যায়। পরে রিনা বেগমের পুত্রকে তার বাবা মার কাছে রেখে ঢাকার সালনা এলাকায় গার্মেন্টেসে চাকরি নেন। প্রায় দুই সপ্তাহ আগে তিনি নকলায় আসেন। ২০ নভেম্বর বিকালে রিফাত তার মা রিনা বেগমকে বসত ঘরের ধর্ণার সাথে ঝুলে থাকতে দেখে ঝুলন্ত মায়ের পায়ে ধরে চিৎকার শুরু করলে ধর্ণা থেকে মেঝেতে পড়ে যায় রিনা বেগমের লাশ।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুশফিকুর রহমান বলেন, নিহতের মরদেহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়ার প্রস্ততি চলছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad