জামালপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১২টি পরিবার নিঃস্ব, ক্ষতি প্রায় ৪০ লাখ টাকা

জামালপুর সদরের ইটাইল ইউনিয়নের শৈলেরকান্দা গ্রামে আগুনে পুড়ে ছাই হয় ১২টি পরিবারের ঘর, সহায় সম্পদ। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুর সদর উপজেলায় দিনেদুপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১২টি পরিবার নিঃস্ব হয়ে গেছে। তাদের ১২টি শোবার ঘর, ১১টি রান্নাঘর ও ঘরে মজুদ ধান, চালসহ সমস্ত আসবাসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় ৪০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ১ মে সকালে উপজেলার ইটাইল ইউনিয়নের শৈলেরকান্দা সরকারবাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্র জানায়, ১ মে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার শৈলেরকান্দা সরকারবাড়ি এলাকার নায়েব আলীর শোবার ঘরে কে বা কারা আগুন ধরিয়ে দেয়। মুহূর্তেই আগুন পাশের বাড়িঘরে ছড়িয়ে পড়ে। জামালপুর থেকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পৌঁছার আগেই আগুনে ১২টি পরিবারের টিনের তৈরি ১২টি শোবার ঘর ও ১১টি রান্না ঘর পুড়ে ছাই হয়। আগুনে প্রতিটি পরিবারের ধান, চাল ও অন্যান্য ফসল, ছাগল, মুরগি, খাট, চৌকি, ফ্রিজ, শোকেস, ডাইনিং টেবিলসহ সমস্ত আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়েছে। এতে অন্ততপক্ষে ৪০ লাখ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো। খবর পেয়ে জামালপুর সদরের ইউএনও লিটুস লরেন্স চিরান ও জামালপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিবলী সাদিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ইউএনও লিটুস লরেন্স চিরান বাংলারচিঠিডটকমকে বলেন, সদরের শৈলেরকান্দায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো বলা যায় একেবারেই নিঃস্ব হয়ে গেছে। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তাৎক্ষণিক ক্ষতিগ্রস্ত ১২টি পরিবারের মধ্যে প্রত্যেক পরিবারকে ২০ কেজি করে চাল ও নগদ আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে পাঁচ হাজার টাকা করে। তাৎক্ষণিক আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। তবে পুলিশ ও ফায়ারসার্ভিস ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad