সৃষ্টি স্কুলকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করলেন ইউএনও ফরিদা

জামালপুরের সৃষ্টি স্কুল ও কলেজে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন সদরের ইউএনও ফরিদা ইয়াছমিন। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

করোনা মহামারিকালে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে অফলাইন ক্লাস চালু রাখার অপরাধে জামালপুর শহরের সৃষ্টি স্কুল ও কলেজের উপাধ্যক্ষকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন নির্বাহী হাকিম জামালপুর সদরের ইউএনও ফরিদা ইয়াছমিন। ১৫ মার্চ সকালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান চালান তিনি।

ইউএনও ফরিদা ইয়াছমিন এ প্রতিবেদককে জানান, তার কাছে অভিযোগ ছিল করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে জামালপুর শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টারগুলো খোলা রেখে নিয়মিত পাঠদান চলছে। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি ১৫ মার্চ বেলা ১১টার দিকে জামালপুর শহরের কলেজ রোড সরকারপাড়া এলাকায় নন-এমপিওভুক্ত সৃষ্টি স্কুল ও কলেজে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির প্রতিটি কক্ষে বিভিন্ন শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পাঠদান চলছিল।

জামালপুরের সৃষ্টি স্কুল ও কলেজে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের সময় একটি ক্লাসে শিশু শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

সারাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সরকারি নির্দেশনাকে অমান্য করে প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে অফলাইন ক্লাস চালু রাখার অপরাধে প্রতিষ্ঠানটির উপাধ্যক্ষ আব্দুস সামাদকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ইউএনও। ২০১৮ সালের সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইনের আওতায় এ অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। পরে তাৎক্ষণিক জরিমানার টাকা পরিশোধ করে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানে আর অফলাইন ক্লাস না বসিয়ে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার অঙ্গীকার করেন প্রতিষ্ঠানটির উপাধ্যক্ষ আব্দুস সামাদ।

ইউএনও আরো জানান, করোনা মহামারিকালে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে চালু রাখা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টারগুলোর বিরুদ্ধে এ ধরনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad