দেওয়ানগঞ্জে মুজিববর্ষের উপহার জমি ও ঘর পেল ১৭২টি গৃহহীন পরিবার

উপকারভোগীর হাতে ঘরের চাবি ও জমির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র হস্তান্তর করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোলায়মান হোসেন। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

বিল্লাল হোসেন মন্ডল, দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার সরকারি আধা পাকা ১৭২টি ঘর পেল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার। ২৩ জানুয়ারি সকালে মুজিব শতবর্ষ উৎযাপন উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারদের জমি ও গৃহ প্রদান কর্মসূচীর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভিডিও কনফারেন্সের শেষে উপজেলার ১৭২টি ঘর ও জমি প্রয়োজনীয় কাগজপত্র হস্তান্তর করা হয় সুবিধাভোগীদের হাতে।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোলায়মান হোসেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ. কে. এম আব্দুল্লাহ বিন রশিদ এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইস্তিয়াক হোসেন দিদার, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার খাইরুল ইসলাম, পৌর মেয়র শাহনেওয়াজ শাহান শাহ্, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দেওয়ান ইমরান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাছলিমা আক্তার লিপি, মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ মহব্বত কবীর, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা চিকিৎসক আহসান হাবিব, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এনামুল হাসান, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সংক্রান্তে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ এমপির প্রতিনিধি মুস্তাকিম বিল্লাহ শিপন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শ্যামল চন্দ্র সাহা, ইউপি চেয়ারম্যান মমতাজ উদ্দিন আহম্মেদ, সেলিম খান, সোহেল রানা, দেওয়ানগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মদন মোহন ঘোষ ও ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সোলায়মান হোসেন।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মেহের উল্লাহ, প্রথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবতাফ উদ্দিন, কৃষি কর্মকর্তা দিলরুবা ইয়াসমিন, উপজেলা প্রকৌশলী সাহেদ হোসেন, সমবায় কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী রাকিবুল হাসান, প্রেসক্লাবের সভাপতি রেজাউল করিম এলান, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি খাদেমুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল হোসেন মন্ডলসহ স্থানীয় নেতৃ ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

জানা গেছে, দুই কক্ষ বিশিষ্ট প্রতিটি আধা পাকা ঘর নির্মাণে সরকারের ব্যয় হচ্ছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। দেওয়ানগঞ্জে ১৭২টি ঘর নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ২ কোটি ৯৪ লাখ ১২ হাজার টাকা।

Views 84   ফেসবুকে শেয়ার করুন!
সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad