‘আমি অন্যায় করেছি’

ইজিবাইকে মাইক লাগিয়ে ভুয়া কাজি আব্দুল বাসেদ নিজ দোষ স্বীকার করে তা প্রচার করছেন। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

সুজন সেন, নিজস্ব প্রতিবেদক, শেরপুর
বাংলারচিঠিডটকম

আমি অন্যায় করেছি। আরও অঙ্গীকার করছি যে, ভবিষ্যতে আর কোন প্রকার বাল্যবিবাহ পড়াব না এবং অনৈতিক কোন কাজ করব না। শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় বাল্যবিবাহসহ অন্যায়ভাবে অসংখ্য বিয়ে সম্পাদন করার অপরাধে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে শাস্তিস্বরূপ এলাকায় ইজিবাইকে মাইক লাগিয়ে আব্দুল বাসেদ নামে এক ভুয়া কাজি নিজ দোষ স্বীকার করে তা প্রচার করছেন। প্রশাসনের এমন পদক্ষেপকে অনেকেই সাধুবাদ জানিয়েছেন।

৬ ডিসেম্বর থেকে একটি ইজিবাইকে চড়ে এসব প্রচার করতে শুরু শুরু করেছেন ওই কাজি। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে একদিন করে তা প্রচার করা হবে। ভুয়া কাজী আব্দুল বাসেদ উপজেলার সুরিহারা গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলী ছেলে।

ইউএনও রুবেল মাহমুদ বলেন, এই কাজির সরকারি কোন নিবন্ধন ছিল না। দীর্ঘদিন যাবত কাজি পরিচয়ে এলাকায় তিনি অন্যায়ভাবে বিবাহ সম্পাদন করে আসছিলেন। বাল্যবিবাহ পড়ানোর দায়ে এর আগেও একমাসের সাজাভোগ করেছেন তিনি।

অন্যায়ভাবে বিবাহ সম্পাদনের কাজ করায় ৭ ডিসেম্বর বিকেলে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে শাস্তিস্বরূপ এলাকায় ইজিবাইক নিয়ে নিজ দোষ স্বীকার করে তিনি মাইকে প্রচার করছেন আমি যা করেছি অন্যায় করেছি, আরও অঙ্গীকার করছি যে, ভবিষ্যতে আমি কোন প্রকার বাল্যবিবাহ পড়াব না এবং অনৈতিক কোন কাজ করব না।

বাসেদ বলেন, আমি ১০০ টাকার স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে উপজেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন জনপ্রতিনিধিদের কাছে অঙ্গীকার করছি, ভবিষ্যতে আমি আর কোন বাল্যবিবাহ পড়াবোনা ও অনৈতিক কোন কাজ করব না।

প্রশাসনের এমন পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়ে ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অমিনুল ইসলাম বাদশা বলেন, এর মাধ্যমে ভুয়া কাজি বাসেদ আত্মশুদ্ধির সুযোগ পেল। এছাড়া অন্য ভুয়া কাজিরাও এ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করবেন এবং অন্যায় থেকে দূরে থেকে সাবধান হবেন।

sarkar furniture Ad
Green House Ad