পুকুর থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার, মা পলাতক

সুজন সেন, নিজস্ব প্রতিবেদক, শেরপুর
বাংলারচিঠিডটকম

শেরপুর শহরের নওহাটা এলাকার একটি পুকুরের পানিতে ভাসমান অবস্থায় ৭ মাস বয়সী আরাফাত তাসিন নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ওই শিশুর মা নুরুন্নাহার পলাতক রয়েছে। ২ ডিসেম্বর সকালে বাড়ির পাশের ওই পুকুর থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ, নিহতের স্বজন ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শেরপুর শহরের নওহাটা এলাকার রড-সিমেন্ট ব্যবসায়ী আবু সামা ও নুরুন্নাহার দম্পতির ৪ ছেলে-মেয়ে। এদের মধ্যে গত ৭ মাস আগে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে আরাফাত তাসিনের জন্ম হয়। তাসিনের জন্মের পর থেকেই মা নুরুন্নাহার অসুস্থ ও অস্বাভাবিক আচরণ করে আসছিল। এক পর্যায়ে শিশু তাসিনকে তার মা সহ্য করতে পারছিল না। এ অবস্থায় তার বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া বড় বোন শ্রাবণী ও স্কুলপড়ুয়া বোন লাবণীর কাছে বড় হতে থাকে। ২ ডিসেম্বর সকালে মা নুরুন্নাহার ও শিশু তাসিনকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে পুকুরে তাসিনের মরদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। ওই সময় থেকে মা নুরুন্নাহারকেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে খবর পেয়ে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত তাসিনের বোন লাবনী জানায়, তাসিনের জন্মের পর থেকেই মা নুরুন্নাহার অসুস্থ ছিল। রাতে ঠিক মতো ঘুমাতো না। এক সময় পাগলের মতো আচরণ করতে থাকে। এরপর থেকে ভাইয়ের দেখাশোনা সে ও তার বড় বোন করছিল। ২ ডিসেম্বর ভোর রাত থেকে তার মায়ের কোন সাড়াশব্দ পাচ্ছিল না। এছাড়া ভাই ভোরে কান্নাকাটি করলেও আজ কোন আওয়াজ না পাওয়ায় বাইরে গিয়ে খোঁজ করে সে। কিন্তু দুজনের কাউকেই না পেয়ে ঘরে এসে আবার ঘুমিয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে প্রতিবেশীরা পাশের পুকুরে ডুবন্ত অবস্থায় তাসিনের পা ভাসতে দেখে তাদের খবর দেয়।

এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন সদর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন।

sarkar furniture Ad
Green House Ad