সংবাদ লেখায় সাংবাদিকদের জেন্ডার সংবেদনশীল হতে হবে

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর জামালপুরের উপ-পরিচালক কামরুন্নাহার। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

জেন্ডার বৈষম্য দূর করে গণমাধ্যমে জেন্ডার সংবেদনশীল প্রতিবেদন উপস্থাপনের মাধ্যমে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সক্রিয় ভূমিকা পালনের অঙ্গীকার করলেন জামালপুরের বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা। ‘নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০২০’ উদযাপন উপলক্ষে জামালপুর জেলার সাংবাদিকদের সাথে ২৯ নভেম্বর মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের জামালপুর জেলা কার্যালয়ে আস্থা প্রকল্প আয়োজিত আলোচনা সভায় এ অঙ্গীকার ব্যক্ত করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কামরুন্নাহার আলোচনা সভার উদ্বোধন করে বলেন, বর্তমানে জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতার পরিমাণ সারাদেশে যে হারে বেড়েছে তা সংবাদকর্মীদের মাধ্যমেই সবার সামনে উঠে আসছে। তবে সংবাদকর্মীদের এ ধরনের সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে সংবেদনশীলতার পরিচয় দিতে হবে, যেন কোনো সারভাইভার নতুন করে আর কোনো সহিংসতার শিকার না হয়। জেন্ডার সংবেদনশীল রিপোর্ট তৈরিতে আস্থা প্রকল্পের এই আলোচনা অনুষ্ঠান খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমার মনে হয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলারচিঠিডটকম এর সম্পাদক জাহাঙ্গীর সেলিম। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বাংলারচিঠিডটকম এর সম্পাদক জাহাঙ্গীর সেলিম বলেন, আমরা প্রত্যেক সাংবাদিক সবসময় জেন্ডার সংবেদনশীলতার সাথেই যেকোনো ধরনের সংবাদ পরিবেশনের চেষ্টা করি। আজকের এই আলোচনা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সহিংসতার শিকার সারভাইভারের সাথে সর্বোচ্চ গোপনীয়তা, সম্মান ও সংবেদনশীলতা বজায় রেখে সংবাদ উপস্থাপনের গুরুত্ব আমাদের কাছে সুস্পষ্ট। আমরা আজ থেকে যেকোনো ধরনের সংবাদ উপস্থাপনে সেটা যেনো জেন্ডার সংবেদনশীল হয় সেদিকে খেয়াল রাখবো।

আলোচনা সভায় গণমাধ্যমে জেন্ডার সংবেদনশীল প্রতিবেদন শীর্ষক আলোচনা সভার উদ্দেশ্য ছিলো গণমাধ্যমকর্মীরা যেন বিভিন্ন লেখায় বা প্রতিবেদনে নারীকে হেয় ও তুচ্ছ করে উপস্থাপন না করেন, সহিংসতার শিকার সারভাইভারের সাথে সর্বোচ্চ গোপনীয়তা, সম্মান ও সংবেদনশীলতা বজায় রাখেন সে বিষয়ে সচেতন করে তোলা এবং একই সাথে আস্থা প্রকল্পের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরে এর ভালো উদ্যোগগুলোকে গণমাধ্যমে উপস্থাপনের বিষয়ে সম্পৃক্ত করা। আস্থা প্রকল্পটি নেদারল্যান্ডস এম্বাসির অর্থায়নে, ইউএনএফপিএ ও আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সহযোগিতায় জামালপুর জেলায় মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নে কাজ করছে বলে সভায় জানানো হয়।

আলোচনা সভায় অংশগ্রহণকারী সাংবাদিকবৃন্দ। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আস্থা প্রকল্পের অংশীদ্বার সংস্থা স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতির ভারপ্রাপ্ত প্রকল্প সমন্বয়কারী সুখরঞ্জন পাল। এ সময় আইন ও সালিশ কেন্দ্রের মনিটরিং এন্ড ইভালোয়েশন এক্সপার্ট মেহেদী হাসান আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০২০ এর থিম সর্ম্পকে এবং এ উপলক্ষে আয়োজিত বিভিন্ন কর্মসূচি সম্পর্কে আলোচনা করেন। পরে ভার্চুয়াল আলোচনায় কমিউনিকেশন এক্সপার্ট মিতালী দাস গণমাধ্যমে যোগাযোগের ক্ষেত্রে জেন্ডার সম্পর্কিত উপস্থাপনা, জেন্ডার সংবেদনশীল সাংবাদিকতার নীতি নির্দেশিকা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এছাড়াও আলোচনায় অংশ নেন ইউএনএফপিএ প্রতিনিধি অপূর্ব চক্রবর্তী ও আস্থা প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত প্রকল্প সমন্বয়কারী মোস্তাইন বিল্লাহ।

আলোচনা সভায় জামালপুর জেলায় কর্মরত বেশ কয়েকজন ৩০ জন সাংবাদিক অংশ নেন।

Views 172 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad