বকশীগঞ্জে হঠাৎ শীতের তীব্রতা বেড়েছে, বিপাকে নিম্নআয়ের মানুষ

বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় কার্তিকের শেষের দিকে হঠাৎ করেই শীতের তীব্রতা বেড়েছে। গত দুই দিন ধরে বকশীগঞ্জের গাড়ো পাহাড়ী জনপদ সহ ব্রহ্মপুত্র নদ, দশানী ও জিঞ্জিরাম নদীর তীরবর্তী এলাকায় ঘন কুয়াশা ও শীতের আগমন লক্ষ্য করা গেছে।

জানা গেছে, গত দুই দিন থেকে বকশীগঞ্জ উপজেলাসহ উত্তরাঞ্চলে হঠাৎ করেই তীব্র কুয়াশা ও শীত পড়েছে।

হঠাৎ করেই শীতের তীব্রতা বাড়ায় বেকায়দায় পড়েছেন নিম্নআয়ের মানুষ। ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের গাড়ো পাহাড়ি জনপদে দুপুরের পর থেকেই কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়। সেই সাথে শীতের পরিধিও বাড়তে থাকে।

স্থানীয় হতদরিদ্র মানুষ শীত নিবারণের প্রস্তুতি না নেওয়ায় কার্তিকের শীতেই বিপাকে পড়েছেন। বিশেষ করে নদী তীরবর্তী এলাকায় শীত যেন জেঁকে বসেছে।

তবে সামর্থ্য অনুযায়ী অনেকেই লেপ তোষকের দোকানে আগে ভাগেই লেপ তোষক তৈরি করছেন। নিম্নআয়ের মানুষ এখনও শীতের পোশাক ক্রয় করা বা শীত নিবারণের জন্য কোন প্রস্তুতি নিতে পারেন নি। শীতের কারণে সন্ধ্যার পর পরই পৌর শহর ফাঁকা হয়ে যায়। শহরে মানুষের উপস্থিতিও অনেকটাই কমে গেছে।

এদিকে এখনও খোলা মার্কেটে শীতের কাপড় চোপড় ও গরম কাপর বিক্রি শুরু না হওয়ায় কম দামে এসব পোশাক কিনতে পারছেন না নিম্নআয়ের মানুষ। ফলে পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্টে আছেন এই অঞ্চলের মানুষ।

sarkar furniture Ad
Green House Ad