বকশীগঞ্জে অসুস্থ আদিবাসী মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমার পাশে দাঁড়াল উপজেলা প্রশাসন

মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমার বাড়িতে গিয়ে খোঁজখবর নেন ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার একমাত্র আদিবাসী বীরমুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমা ও তার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা প্রশাসন। তার চিকিৎসাসহ তাকে সার্বিক সহযোগিতা দিয়েছেন ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা।

জানা গেছে, বকশীগঞ্জ উপজেলার ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের গারো পাহাড়ি এলাকা দিঘলাকোনা গ্রামের ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠি সম্প্রদায়ের মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমা দুই মাস যাবত বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে অসুস্থ হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুন মুন জাহান লিজা যোগদান করেই ওই মক্তিযোদ্ধার চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে এবং পিজি হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। সেখানে চিকিৎসা নিয়ে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে বাড়িতে ফিরে আসেন মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমা।

২০ অক্টোবর বিকালে এবেন্দ্র সাংমাকে তার বাড়িতে গিয়ে খোঁজখবর নেন ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা। এসময় তার সাথে তার স্বামী চিকিৎসক মারুফ হোসেন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান ও স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা হামিদুল ইসলাম ও ইউপি সদস্য নুরজাহান বেগম উপস্থিত ছিলেন।

ইউএনও এসময় মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমার আরও উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা সহ তার পরিবারের জন্য আবাসন প্রকল্পের মাধ্যমে গৃহনির্মাণ করে দেওয়ার আশ্বাস দেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুন মুন জাহান লিজা জানান, দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান এবেন্দ্র সাংমা দীর্ঘদিন বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। তার এমন দূরবস্থার খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার চিকিৎসার জন্য সার্বিক সহযোগিতা করা হয়েছে। একই সঙ্গে ডিসি স্যারের সাথে কথা বলে তাকে আর্থিক সহযোগিতার ব্যবস্থা করা হবে।

sarkar furniture Ad
Green House Ad