মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় মা’কে পুড়িয়ে মারল ছেলে

গ্রেপ্তার আবু হানিফ। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

সুজন সেন, নিজস্ব প্রতিবেদক, শেরপুর
বাংলারচিঠিডটকম

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলায় মায়ের শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে ছেলে আবু হানিফকে (১৭) গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। দুর্ভাগা ওই মায়ের নাম হুনুফা বেগম। ১৭ অক্টোবর বিকালে পৌর শহরের তাঁতিহাটি পশ্চিমপাড়া এলাকা থেকে ওই পাষন্ড ছেলে গ্রেপ্তার হয়। এর আগে এ ঘটনায় হুনুফা বেগমের বড় ভাই দুলাল মিয়া বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তাঁতিহাটি পশ্চিমপাড়া এলাকার ইজারাদার সদাগড় আলী সদার ১ ছেলে ও ২ মেয়ে। এদের মধ্যে ছেলে আবু হানিফ সবার বড়। কিছুদিন যাবত মায়ের কাছে মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার বায়না ধরে আসছিল হানিফ। মা হুনুফা বেগম এতে রাজি না হওয়ায় ১১ অক্টোবর রাতে তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় ছেলে। এতে মারাত্মকভাবে অগ্নিদগ্ধ হয় হুনুফা বেগম। এ সময় তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে শেরপুর ও ময়মনসিংহ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেও তার অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। অবশেষে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে ১৬ অক্টোবর সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হুনুফার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহত হুনুফা বেগমের বড় ভাই শেরপুর শহরের চকপাঠক এলাকার বাসিন্দা দুলাল মিয়া বাদী হয়ে ১৭ অক্টোবর ভাগনে আবু হানিফের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

অন্যদিকে আবু হানিফকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আমিন তালুকদার।

74 Views
sarkar furniture Ad
Green House Ad