জামালপুরের ৫ কার্টন ফোনসেট খুলনা থেকে উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩ দুর্বৃত্ত

চুরি হওয়া ফোনসেটসহ খুলনা ও যশোর থেকে গ্রেপ্তার তিন দুর্বৃত্ত। ছবি : বাংলারচিঠিডটকম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুরে দিনেদুপুরে প্রকাশ্য রাস্তায় অভিনব কায়দায় রিকশা থেকে চুরি করার সাতদিন পর পাঁচ কার্টন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনসেটসহ তিনজন দুর্বৃত্তকে খুলনা ও যশোর থেকে গ্রেপ্তার করেছে জামালপুর সদর থানা পুলিশ। পাঁচ কার্টনভর্তি ৫২টি এন্ড্রয়েড ফোনসেটের মধ্যে ৫০টি উদ্ধার হয়েছে এবং দুটি সেট খোয়া গেছে।

গত ১ অক্টোবর দুপুরে জামালপুর শহরের ব্যস্ততম মেডিক্যাল রোডের নিরালা মার্কেটের সামনে এই চুরির ঘটনা ঘটেছিল। ৮ অক্টোবর ভোরে গ্রেপ্তার তিনজন দুর্বৃত্তকে জামালপুর এনে বিকেলে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবেশক সূত্র জানায়, গত ১ অক্টোবর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জামালপুর শহরের স্টেশন রোডের একটি কোম্পানির ফোনসেটের পরিবেশক মো. রফিকুজ্জামানের ব্যবস্থাপক শান্ত পাল রিকশাযোগে পাঁচ কার্টনভর্তি ৫২টি ফোনসেট নিয়ে মার্কেটে যাচ্ছিলেন। পথে শহরের মেডিক্যাল রোডে নিরালা মার্কেটের সামনে সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তরা রিকশা থামিয়ে শান্ত পালকে বোকা বানিয়ে রিকশা ও রিকশায় থাকা ফোনসেটগুলো নিয়ে দ্রুত সেখান থেকে কেটে পড়েন।

এ ঘটনায় ওই কোম্পানির পরিবেশক রফিকুজ্জামানের দায়ের করা মামলাটির তদন্তে নামে সদর থানা পুলিশ। সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান ঘটনাস্থল ও আশপাশের দোকান থেকে সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেন। ফুটেজ দেখে ফোনসেট বহনকারী ওই রিকশাটি চিহ্নিত করেন। জামালপুর শহরের বউ বাজারের একটি রিকশার গ্যারেজ থেকে দুর্বৃত্তদের ফোন নম্বর সংগ্রহ করে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে দুর্বৃত্তদের অবস্থান নিশ্চিত হন ওসি। দুর্বৃত্তরা ওই গেরেজ থেকে রিকশা ভাড়া নিয়েছিল।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. ফজলে হোসেন মাসুদ ও এসআই মো. সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ৭ অক্টোবর দিনব্যাপী অভিযান চালিয়ে প্রথমে খুলনা থেকে দুই দুর্বৃত্ত এবং পরে যশোর থেকে আরেকজন দুর্বৃত্তকে গ্রেপ্তার করেন। তাদের কাছে থেকে ৫২টি ফোনসেটের মধ্যে ৫০টি সেট উদ্ধার করা হয়েছে। ৮ অক্টোবর ভোরে গ্রেপ্তার তিনজন দুর্বৃত্তকে খুলনা ও যশোর থেকে জামালপুর সদর থানায় নিয়ে আসা হয়।

গ্রেপ্তার দুর্বৃত্তরা হলেন খুলনার খান জাহান আলী এলাকার পূর্ব সেনপাড়া গ্রামের মৃত মাহবুবুর রহমান ওরফে আজহারের ছেলে রওশন আলী (৩৫), একই এলাকার মৃত আলী আহমেদের ছেলে রবিউল ইসলাম রবি (৩২) এবং যশোরের শার্শা উপজেলার মাঠগাড়া এলাকার মোক্তার মোড়লের ছলে মো. মনির হোসেন রনি (২৮)। তাদের মধ্যে মনির হোসেন ও রওশন আলী একাধিক মামলার আসামি।

এ প্রসঙ্গে জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালেমুজ্জামান এ প্রতিবেদককে জানান, গ্রেপ্তার হওয়া দুর্বৃত্তরা মূলত: জেলার বাইরে থেকে এসে রিকশার গেরেজ থেকে রিকশা ভাড়া নিয়ে জামালপুর শহরে ফেরি করে বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করার নামে চুরিসহ বিভিন্ন অপরাধ করে থাকে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার দুর্বৃত্তরা ফোনসেট চুরি করার কথা স্বীকার করেছে। ঘটনার দিন দায়ের করা মামলায় এই তিনজন দুর্বৃত্তকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : দেওয়ানগঞ্জে ১২০০ ইয়াবাসহ ২ কারবারি আটক 

Views 155 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad