কুলিয়ার সাবেক ইউপি সদস্য মজনু করোনাতেই মারা যান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠিডটকম

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার কুলিয়ার সাবেক ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক মজনু (৬৫) করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েই মারা গেছেন। ১১ জুন ময়মনসিংহের পিসিআর ল্যাব থেকে আসা প্রতিবেদনে তার করোনা পজিটিভ আসে। এ নিয়ে জামালপুর জেলায় করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে পাঁচজনের মৃত্যু হলো। সংশ্লিষ্ট সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

সাবেক ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক মজনুর মৃত্যুপরবর্তী নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে মেলান্দহের ইউএইচএফপিও চিকিৎসক মো. ফজলুল হক এ প্রতিবেদককে জানান, মোজাম্মেল হক মজনু করোনার উপসর্গ তীব্র জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ৭ জুন ভোরে পাশের ইসলামপুর উপজেলার চর গোয়ালিনী ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রামে তার ভগ্নিপতি সাবুর বাড়িতে মারা যান। ওই বাড়ির লোকজনরা তার মরদেহ তড়িঘড়ি করে মেলান্দহ উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের কুলিয়া মধ্যপাড়ার নিজ বাড়িতে পৌঁছে দেন।

তিনি আরও জানান, মৃত্যুর আগের রাতে তার চিকিৎসা ও নমুনা দেওয়ার জন্য মেলান্দহ উপজেলা হাসপাতালে আনার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন স্বজনরা। টের পেয়ে তিনি ওই রাতেই পালিয়ে তার ভগ্নিপতি সাবুর বাড়িতে উঠেছিলেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাকে তার নিজ বাড়ি কুলিয়া মধ্যপাড়ায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফনের আগে স্বাস্থ্যকর্মীদের দিয়ে তার নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। ১১ জুন ল্যাবের প্রতিবেদনে তার করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়।

করোনা সংক্রমণ রোধে ওই মৃত্যুর স্থান ইসলামপুরের ওই গুচ্ছগ্রামে তার ভগ্নিপতির বাড়িতে ইসলামপুরের স্বাস্থ্যকর্মীরা এবং মেলান্দহের স্বাস্থ্যকর্মীরা মেলান্দহের কুলিয়া মধ্যপাড়ায় তার নিজবাড়ির স্বজন ও সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

জামালপুরের সিভিল সার্জন চিকিৎসক প্রণয় কান্তি দাস এ প্রতিবেদককে জানান, জামালপুরে ৫ এপ্রিল প্রথম করোনার রোগী শনাক্ত হওয়ার পর করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে মেলান্দহের সাবেক ইউপি সদস্যসহ এ পর্যন্ত জেলায় পাঁচজনের মৃত্যু হলো। এর আগে ইসলামপুরে দু’জন নারীর মৃত্যুর পর নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ, দেওয়ানগঞ্জ ও মেলান্দহ উপজেলায় দু’জন পুরুষ ব্যক্তি ময়মনসিংহের কভিড-১৯ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ১১ জুন করোনা শনাক্ত হওয়া সাবেক ইউপি সদস্যের নিজ বাড়ি এবং তার ভগ্নিপতির বাড়ির স্বজনদের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হচ্ছে।

Views 32 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad