ঈদ উপলক্ষে শেরপুরে ৯০০ পুলিশের জন্য ২১ পদের বিশেষ খাবার মেন্যু

সুজন সেন, নিজস্ব প্রতিবেদক, শেরপুর
বাংলারচিঠিডটকম

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শেরপুরে কর্মরত নয় শতাধিক পুলিশ সদস্যদের জন্য ২১ পদের খাবারের বিশেষ আয়োজন করেছে জেলা পুলিশ লাইন্স মেস কর্তৃপক্ষ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেইজ জেলা পুলিশ, শেরপুর এ এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। ২৫ মে দুপুরে ওই পেইজটি ভিজিট করার সময় দেখা যায় পুলিশ সদস্যদের জন্য তিন বেলা খাবারের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে রুচি সম্পন্ন বাহারী খাবার। পুলিশ লাইন্স মেস কমিটির সদস্য সচিব ও আতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর (সদর সার্কেল) জানান, কমিটির উপদেষ্টা পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম (পিপিএম) এর দিক নির্দেশনায় এ আয়োজন করা হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে আগামী তিন দিন বলবৎ থাকবে এ কার্যক্রম।

ফেসবুক পেইজ জেলা পুলিশ, শেরপুর সূত্রে জানা যায়, ঈদের দিন সকালের খাবার মেন্যুতে রয়েছে স্ট্রীম ভেজিটেবল উইথ রাইস, শাহী লুচি, বাটার ডাল, বীফ স্টীল, দুধ সেমাই, দই, চিড়া ও রসগোল্লা, দুপুরে পোলাও, চিকেন, শাহী কোরমা, হায়দ্রাবাদী মটনকারী, শাহী জর্দ্দা, মটন জনলা, জেলোটা, নওয়াবী লাচ্ছা, রসগোল্লা আর রাতে মুগলাই বিরিয়ানী, দইবুন্দিয়া, সুজির মালাই চপ, সালাদ, ম্যাংগো ফালুদা ও বোরহানী।

ওই ফেসবুক পেইজটি ভিজিট করে অনেকেই লাইক এবং কমেন্ট করেছেন। কমেন্ট বক্সে জাকারিয়া কাজল নামে একজন লেখেন- অনেক সুন্দর মেন্যু, আপনাকে (পুলিশ সুপার) চিরস্মরণীয় করে রাখবে শেরপুর জেলায় কর্মরত সকল পুলিশ সদস্য।

এমডি সোহেল রানা লেখেন, শেরপুর জেলা পুলিশ, ময়মনসিংহ বিভাগের অন্যান্য পুলিশ লাইন্সসহ সারা বাংলাদেশের রুল মডেল। ধন্যবাদ জেলা পুলিশ, শেরপুর।

এমডি সোহান হোসেইন লেখেন, খালি মেন্যু দেখে গেলাম, আমাদের ইউনিটে পাই না।

সজল নুপুর নামে একজন লেখেন, দেখেই শান্তি।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, পুলিশ সুপারের এমন উদ্যোগে জেলায় কর্মরত সকল পুলিশ সদস্য ভীষণ খুশি। অনেক পুলিশ সদস্য তাকে জানিয়েছেন তাদের চাকরি জীবনের ২৮/৩০ বছরে এমন আয়োজন দেখেননি।

তিনি বলেন, ২৫ মে দুপুরে পুলিশ লাইন্সে দুপুরের খাবার খেয়েছেন পুলিশ সুপার। এছাড়া জেলার অন্য উপজেলাগুলোতে বরাদ্দ করা খাবার ঠিকভাবে পরিবেশন করা হচ্ছে কিনা তা তদারকি করতে বেরিয়ে পড়েন তিনি।

বিশাল এ আয়োজন সম্পন্ন করতে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বাবূর্চী সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

আতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর (সদর সার্কেল) আমিনুল ইসলাম বলেন, জেলা পুলিশ বিভাগে কর্মরত ডিবি, পুলিশের বিশেষ শাখা সদস্যসহ সদর উপজেলা, নকলা, নালিতাবাড়ী, শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতী থানায় কর্মরত নয় শতাধিক পুলিশ সদস্যদের জন্য ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এসব আয়োজন করা হয়েছে।

Views 28 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad