স্কোয়াড্রন লীডার আনিছুর রহমানের জানাযা সম্পন্ন

স্কোয়াড্রন লীডার আনিছুর রহমান সোহাগ

জাহিদুর রহমান উজ্জল, মাদারগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠিডটকম

জামারপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার গুনারিতলা ইউনিয়নের গুনারিতলা গ্রামের রমজান আলী ডাক্তারের ছেলে স্কোয়াড্রন লীডার আনিছুর রহমান সোহাগের জানাযা ৫ ফেব্রুয়ারি গুনারিতলা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানা যায়, স্কোয়াড্রন লীডার আনিছুর রহমান ১৪ অক্টোবর বিকালে যশোর প্রশিক্ষণ যুদ্ধবিমান উড্ডয়নের সময় দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন। তাকে ঢাকায় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে সিঙ্গাপুর রেফেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ১১৩ দিন পর ৩ ফেব্রুয়ারি তিনি মারা যান। তার লাশ ৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৭.৪০টায় দেশে আনা হয়।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৭ বছর। তিনি বাবা, মা, স্ত্রী ও আহাম্মদ আব্দুল্লাহ নামে আড়াই বছর বয়সের এক ছেলেসহ অনেক গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ৪৯তম কমিশন লাভ করেন।

৫ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর এমআই-১৭ হেলিকপ্টারযোগে সকাল ১০টায় গুনারিতলা গ্রামের বাড়িতে স্কোয়াড্রন লীডার আনিছুর রহমানের লাশ আনা হয়। এসময় সাথে ছিলেন বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার শরীফ, স্কোয়াড্রন লীডার শহীদুল আলম ও স্কোয়াড্রন লীডার সুমন।

জানাযা শেষে স্কোয়াড্রন লীডার আনিছুর রহমানের লাশ ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। সূত্রে জানা যায়, ঢাকায় জানাযা শেষে তার লাশ বিমান বাহিনীর কবরস্থানে দাফন করা হয়।

sarkar furniture Ad
Green House Ad