তুলসীরচরে কৃষককে জবাই করে হত্যা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, জামালপুর
বাংলারচিঠিডটকম

জামালপুর সদর উপজেলার তুলসীরচর ইউনিয়নে জাহাঙ্গীর আলম (২৫) নামের একজন কৃষককে জবাই করে হত্যার পর ধান খেতে পুতে রেখে লাশ গুম করেছিল দুর্বৃত্তরা। পুলিশ ১৫ মে দুপুরে স্থানীয় আনন্দবাজার এলাকায় একটি ধান খেত থেকে লাশটি উদ্ধার করে জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। নিহত জাহাঙ্গীর আলম ওই ইউনিয়নের টেবিরচর গ্রামের ফুল মাহমুদের ছেলে।

নিহেতের চাচা স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. খলিলুর রহমান বাংলারচিঠিডটকমকে জানান, তার ভাতিজা কৃষক জাহাঙ্গীর আলম আট মাস আগে ইরাক থেকে নিজ গ্রামে ফিরে পুনরায় কৃষি আবাদ শুরু করেন। ১২ মে রাত ৯টার পর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। ১৫ মে ভোরে ওই ইউনিয়নের আনন্দবাজার এলাকায় পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের পারে ধান খেতে পুতে রাখা একটি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে নিকটবর্তী লক্ষ্মীরচর ইউনিয়নের বারুয়ামারী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ১৫ মে দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে। বিষয়টি জানাজানি হলে বাড়ি থেকে তার স্বজনরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

বারুয়ামারী তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ পরিদর্শক মো. জাহেদুল হক বাংলারচিঠিডটকমকে বলেন, ‘লাশের গলা কাটা ছিল। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা তাকে জবাই করে হত্যা করেছে। তাৎক্ষণিকভাবে তার পরিবারের সদস্যরা এ হত্যাকান্ডের কারণ জানাতে পারেনি। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’

sarkar furniture Ad
Green House Ad