বরিশালে বাসচাপায় শিক্ষার্থীসহ নিহত ৬

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক : বরিশাল-বানারীপাড়া সড়কের গড়িয়ারপাড় এলাকায় ২২ মার্চ সকালে বাসের চাপায় শিক্ষার্থীসহ ছয় অটোযাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো চারজন।

নিহতরা হলেন ঝালকাঠির বাসিন্দা ও বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন কলেজের (বিএম) মাস্টার্সের গণিত প্রথম বর্ষের ছাত্রী শীলা হালদার, বাকেরগঞ্জের ইউনুস সিকদারের ছেলে ও নগরীর নথুল্লাবাদ এলাকার বাসিন্দা রং মিস্ত্রি মানিক সিকদার, নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাশিপুর এলাকার এনছাফ আলীর ছেলে অটোরিকশাচালক খোকন, বরিশালের কাশিপুরের গণপাড়া এলাকার ইদ্রিস খানের ছেলে অটোচালক সোহেল, বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশার মোখলেস হাওলাদারের স্ত্রী পারভীন ও মেহেরুন নেছা।

আহতদের মধ্যে বাবুগঞ্জের দুর্গাসাগর এলাকার মোকলেছ হাওলাদারের ছেলে তাইউম, তন্নী আক্তার, বি এম কলেজ ছাত্র মো. সুমন, দুলাল হাওলাদার ও অজ্ঞাত এক ছেলেকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনার খবরে হতাহতদের স্বজনরা বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে ভিড় করেন।

নগরীর বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহমান মুকুল বলেন, অটোরিকশাটি যাত্রী নিয়ে বানারীপাড়া থেকে বরিশালের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। পথে গরিয়ারপাড় এলাকার তেতুলতলায় বানারীপাড়াগামী দুর্জয় পরিবহনের একটি বাস অটোরিকশাটি ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়েমুচড়ে সড়কের পাশে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই কলেজ ছাত্রী শীলা মারা যান।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মানিক ও খোকনকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ছাড়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মেহেরুন নেছা, অটোচালক সোহেল ও পারভীন। বাকিদের হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

ওসি বলেন, ঘটনার পরপরই বাসটি দ্রুতগতিতে চালিয়ে চলে যাওয়ায় চালক ও হেলপারকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তাদের আটকে অভিযান চালানো হচ্ছে। সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

Views 18 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad