নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে তাকে এই হত্যার হুমকি প্রদান করা হয়। টুইটে জেসিন্ডাকে উদ্দেশ্য করে ‘ইউ আর নেক্সট’ ক্যাপশন লেখা একটি বন্দুকের ছবি পাঠানো হয়েছে।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সামাজিক মাধ্যমে বেশ কয়েকজন ওই পোস্টের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করায় যে ওই পোস্ট দিয়েছেন তার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হওয়ার ৪৮ ঘণ্টারও বেশি সময় আগে এটি পোস্ট করা হয়েছিল।

এই টুইটটি ছাড়াও ‘নেক্সট ইট’স ইউ’ লেখা এ ধরনের আরও একটি পোস্টে প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা এবং নিউজিল্যান্ডের পুলিশকে ট্যাগ করা হয়েছে। যে টুইটার অ্যাকাউন্টটি থেকে এ বার্তা পাঠানো হয়েছে সেটিতে মুসলিমবিরোধী বিভিন্ন বিষয় ছিল এবং সেখানে হোয়াইট সুপ্রিমেসি বা শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যের পক্ষ নিয়ে বিভিন্ন ঘৃণামূলক বিবৃতিও ছিল।

গেল ১৫ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে উগ্র ডানপন্থী এক সন্ত্রাসীর হামলায় অন্তত ৫০ জন মুসলিম নিহত হন। এ ঘটনার এক সপ্তাহ পর ২২ মার্চ যখন নিউজিল্যান্ডবাসী তাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছে এর মধ্যেই এ মৃত্যুর হুমকির খবর পাওয়া গেল।

এক প্রসঙ্গে এক বিবৃতিতে পুলিশের মুখপাত্র জানিয়েছেন, টুইটারে যে মন্তব্য করা হয়েছে সে বিষয়ে সতর্ক রয়েছে পুলিশ এবং এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি প্রকাশ করায় জেসিন্ডাকে এমন হুমকি দেয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার পর থেকে জেসিন্ডা আরডার্নকে ব্যাপক তৎপর হতে দেখা গেছে। ইতোমধ্যে তিনি দেশটিতে স্বয়ংক্রিয় মিলিটারি জাতীয় অস্ত্র ও অ্যাসল্ট রাইফেল নিষিদ্ধের ঘোষণা দিয়েছেন।

এছাড়া শুরু থেকেই দেশটির মুসলমানদের প্রতি সহায়নুভূতি জানিয়ে আসছেন তিনি। এমনকি ২২ মার্চ আল নুর মসজিদে জুমার নামাজের আগে নিহতদের স্মরণে যে দুই মিনিটের নীরবতা পালন করা হয় সেখানেও উপস্থিত ছিলেন জেসিন্ডা। তার এসব উদ্যোগের প্রশংসা করছে গোটা বিশ্ব। সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

Views 27 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad