বকশীগঞ্জে নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে মাঠে মেয়র নজরুল

১৯ মার্চ দুপুরে আকস্মিক পৌর শহর পরিদর্শনে বের হন মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর। ছবি : বাংলারচিঠি ডটকম

বকশীগঞ্জ (জামালপুুর) প্রতিনিধি
বাংলারচিঠি ডটকম

ছয় বছর আগে বকশীগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠা হলেও তেমন নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত হয়নি পৌরবাসীর। বিভিন্ন সময় প্রশাসকরা দায়িত্ব পালন করলেও তেমন কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন হয়নি। সর্বশেষ এ বছর নবগঠিত পৌরসভার দায়িত্ব নেন নির্বাচিত মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর।

তিনি দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে বকশীগঞ্জ পৌরসভার মানোন্নয়ন ও সেবা নিশ্চিত করতে ভিন্ন ভিন্ন পরিকল্পনা মাথায় নিয়েছেন। অনেকের সাথে বৈঠক করে পরামর্শ নিয়ে তা বাস্তবায়নের দিকে যাচ্ছেন।

ইতোমধ্যে কয়েকটি রাস্তার পাকাকরণ কাজ শুরু করেছেন মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর। বকশীগঞ্জ পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত মেয়র তিনি। এটি যেমন একটি ইতিহাস তেমনি তার হাত ধরেই বকশীগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের সূচনা ও মডেল পৌরসভা রূপান্তর হবে এমন প্রত্যাশা সাধারণ মানুষের।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বকশীগঞ্জ পৌর এলাকার সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো শহরের জলাবদ্ধতা ও যানজট। এ সমস্যা বকশীগঞ্জ পৌরবাসীকে ভাবিয়ে তুলেছে। কিভাবে জলাবদ্ধতা নিরসন ও যানজট দূর করা যায় তা নিয়ে নগরবাসীর মাঝে শঙ্কা রয়েছে। তবে পৌরবাসীর দাবি হলো যেই পদক্ষেপ নেয়া হোক না কেন তা যেন হয় অবশ্যই টেকসই উন্নয়ন। আর এসব মাথায় নিয়েই উন্নয়নের পথে পা দেবে মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর।

তবে তার প্রথম পদক্ষেপ নিয়ে ইতোমধ্যে জাহির করেছেন। ১৯ মার্চ দুপুরে আকস্মিক পরিদর্শনে বের হন মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর। পুরো শহর ঘুরে সমস্যা দেখভাল করেন নিজে। সঙ্গে ছিলেন কাউন্সিলর, রাজনীতিবিদসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা। যানজট সৃষ্টিকারী বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, হকারসহ বিভিন্ন ব্যক্তিদের সাথে কথা বলে প্রথমে সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি।

এছাড়াও যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং, দিনের বেলায় ভারি পণ্য ট্রাকে কিংবা পণ্য সরবরাহকারী যানবাহনকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা সহ নানা বিষয়ে কথা বলেন তিনি। রাস্তার দু’পাশে সন্ধ্যার পর অবৈধভাবে সবজি বিক্রেতাদের নিয়ে জনগণের যে ভোগান্তির সৃষ্টি হয় তা নিয়েও তিনি সুরাহার চেষ্টা করছেন। একই সঙ্গে বকশীগঞ্জ শহরকে সবুজায়ন করা ও পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে প্রতিষ্ঠা করাই তার মূল কাজ হিসেবে বেছে নিয়েছেন।

একগুচ্ছ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন নিয়ে এগিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে নগরবাসীর সেবা দিতে চান তিনি। শুধু তাই নয় ভোক্তার অধিকার নিয়েও তিনি পরিকল্পনা মাথায় নিয়েছেন। কোনো অসাধু ব্যবসায়ী ভোক্তাদের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে সুবিধা নিচ্ছেন কি না তাও নিজে খতিয়ে দেখবেন বলে পরিকল্পনা করছেন।

বকশীগঞ্জ পৌরবাসীর দাবি, প্রথম মেয়রের হাত ধরে এ পৌরসভাকে একটি আধুনিক পৌরসভায় পা রাখতে চায় তারা। এ জন্য তারা মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগরকে আরো সহনশীল, ন্যায়পরায়ন ও দায়িত্বশীল হয়ে কাজ করার জন্য আহবান জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে বকশীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর বাংলারচিঠি ডটকমকে বলেন, মাস্টার প্ল্যানের মাধ্যমে বকশীগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়ন করা হবে। বর্তমান সরকার উন্নয়নে বিশ্বাসী তাই সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে স্থানীয় সংসদ সদস্য আবুুল কালাম আজাদের পরামর্শে পৌরবাসীর সেবা নিশ্চিত করতে চাই।

sarkar furniture Ad
Green House Ad