বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক : রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে ১৭ মার্চ সকালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় এই মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন।

রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী এখানে বঙ্গবন্ধুর মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ প্রথমে এবং পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর মাজারে ফুল দেন। ফুল দেয়ার পর তাঁরা জাতির জনকের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো উপলক্ষে কিছু সময় নিরবে দাড়িয়ে থাকেন, এ সময় বিউগলে করুন শুরু বেজে উঠে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনীর একটি চৌকস সুসজ্জিত দল গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর এবং ১৫ আগস্টে শাহাদৎবরণকারী অন্যান্য শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাত করেন। বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমীর হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ কবির হোসেন এবং রাশিদুল আলম, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মুহম্মদ ফারুক খান, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া, কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক, শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম ও এনামুল হক শামীম, আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ এমপি ও শেখ হেলাল উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল আওরঙ্গজেব চৌধুরী, বিমান বাহিনী প্রধান মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, তথ্য সচিব আব্দুল মালেক, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীন ও জ্যেষ্ঠ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ এবং পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরে, রাষ্ট্রপতি সমাধি প্রাঙ্গণে রাখা পরিদর্শক বইয়ে স্বাক্ষর করেন।

এর আগে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে পৌঁছলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, শেখ ফজলুল করিম সেলিম এবং আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ তাঁকে স্বাগত জানান।

জাতির জনকের সমাধিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দলের নেতা-কর্মীদের নিয়েও শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ এ বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে রক্ষিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণের পর হেলিকপ্টার যোগে টুঙ্গীপাড়া আসেন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনটি প্রতিবারের মত এবারও দেশব্যাপী শিশু দিবস হিসেবে উদযাপিত হচ্ছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে-‘বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুর জীবন করো রঙ্গিন।’সূত্র : বাসস

sarkar furniture Ad
Green House Ad