টিএসসিতে ছয় দিনব্যাপী `আমার ভাষার চলচ্চিত্র`

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে ছয় দিনব্যাপী ‘আমার ভাষার চলচ্চিত্র ১৪২৫’। ঢাবি চলচ্চিত্র সংসদ ও বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেড এর সহযোগীতায় উৎসবটির উদ্বোধন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।

এই উৎসবটি চলবে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ৬ দিনব্যাপী উৎসবে ১৬টি পূর্ণদৈর্ঘ্য ও ৪টি স্বল্পদৈর্ঘ্য বাংলা চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। আজ এই উৎসবের দ্বিতীয় দিনটি উৎসর্গ করা হয়েছে প্রয়াত চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব আমজাদ হোসনকে।

১১ ফেব্রুয়ারি উৎসবের দ্বিতীয় দিনে সদ্য প্রয়াত চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বদের স্বরণ করা হয়। এদের মধ্যে রয়েছে সদ্য প্রয়াত মৃণাল সেন, আনোয়ার হোসেন, সাইদুল আলম টুটুল এবং আমজাদ হোসেন।

এদিন সকাল ১০টায় সাইদুল আনাম টুটুল পরিচালিত ‘আধিয়ার’, দুপুর ১টায় আমজাদ হোসেন নির্মিত ‘ভাত দে’, দুপুর ৩:৩০টা আনোয়ার হোসেন এর চিত্রগ্রহণ ও তানভীর মোকাম্মেল পরিচালিত ‘নদীর নাম মধুমতি’, সন্ধ্যা ৬:৩০টায় মৃণাল সেনের ‘আকালের সন্ধানে’ প্রদর্শিত হয়।

১২ ফেব্রুয়ারি এ উৎসবের তৃতীয় দিন শুরুতেই সকাল ১০টায় প্রদর্শিত হবে ‘মার্সিলেস মেয়হ্যাম’, দুপুর ১ টায় ‘আনোয়ারা’, দুপুর ৩:৩০টায় ‘সনাতন গল্প’ এবং সন্ধ্যা ৬:৩০টায় ‘দহন’ ছবিগুলো প্রদর্শিত হবে।

আর ১৩ ফেব্রুয়ারি উৎসবের ‘হীরালাল সেন পদক’ প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমেদ এবং বিশিষ্ট চলচ্চিত্র ব্যক্তিরা। এ সময় পূর্ববর্তী বছরের শ্রেষ্ঠ বাংলাদেশি চলচ্চিত্রকে ‘হীরালাল সেন পদক’ প্রদান করা হবে।

এ বছর হীরালাল সেন পদকের জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হয়েছে ৬টি চলচ্চিত্র। সেগুলো হলো- ‘দেবী’, ‘কমলা রকেট’, ‘জন্মভূমি’, ‘পাঠশালা’, ‘সনাতন গল্প’ এবং ‘মাটির প্রজার দেশে’।
সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

Views 34 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad