‘দেবী’ সিনেমা প্রদর্শন বন্ধের দাবি জানিয়েছে তামাক বিরোধী সংগঠনগুলো

‘দেবী’ সিনেমা প্রদর্শন বন্ধের দাবি জানিয়েছে সংবাদ সম্মেলন করে তামাক বিরোধী সংগঠনগুলো। ছবি : সংগৃহিত

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক : ‘দেবী’ সিনেমায় অকারণে বার বার ধূমপানের দৃশ্য ধারণ করায় এর প্রদর্শন বন্ধের দাবি জানিয়েছে তামাক বিরোধী সংগঠনগুলো।

সিনেমাটি প্রদর্শনে দেশের তামাক বিরোধী, জনস্বাস্থ্য উন্নয়নকর্মীদের মধ্যে গভীর উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার জন্ম দিয়েছে। প্রচলিত আইন অনুযায়ী ধূমপানের দৃশ্য প্রদর্শন নিষিদ্ধ হলেও সিনেমাটিতে অকারণে বার বার দেখানো হয়েছে।

১০ ফেব্রুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে এ সংবাদ সম্মেলনের এ দাবি জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক চিকিৎসক সোহেল রেজা চৌধুরী। সঞ্চালনায় ছিলেন ঢাকা আহছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্প সমন্বয়কারী মো. মোখলেছুর রহমান।

মূল প্রবন্ধে বলা হয়, দেবী সিনেমাতে সরাসরি জাপান টোব্যাকো ইন্টারন্যাশনালের উইনস্টন ব্যান্ডের সিগারেট ব্যবহার দেখানো হয়েছে। যা চলচ্চিত্রটিকে তামাকের বিজ্ঞাপনে পরিণত করেছে।

বলা হয়, সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত এ সিনেমাতে প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে কমপক্ষে ১২ বার ধূমপানের দৃশ্য দেখানো হয়েছে। কিন্তু সেখানে আইন অনুসারে সতর্কবাণী না দেখিয়ে নিজেদের মনগড়া সতর্কবাণী দেখানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ থাকার পরও এবার আগামী ১৩ ও ১৪ ফেব্রুয়ারি দেশের একটি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল ও বায়োস্কোপ অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হতে যাচ্ছে। এটা বন্ধ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানানো হয়।

এ সময় ‘দেবী’ চলচ্চিত্রটি আইন মেনে প্রদর্শনে বাধ্য করার পাশাপাশি ভবিষ্যতে সিনেমা, নাটক ও প্রামাণ্যচিত্রে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহারের দৃশ্য বর্জনের দাবিতে উপস্থিত ছিলেন, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন, ঢাকা আহছানিয়া মিশন, এসিডি, ইপসা, ব্যুরো অব ইকনোমিক রিসার্চ, ডব্লিউবিবি ট্রাস্ট, নাটাব, প্রত্যাশা, টিসিআরসি, তাবিনাজ, সুপ্র, বিটা , গ্রাম বাংলা উন্নয়ন কমিটি, বিসিসিপি, এইড ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন তামাক বিরোধী সংগঠনের নেতা ও কর্মীরা।
সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

sarkar furniture Ad
Green House Ad