ফিলিপাইনের চার্চে জোড়া বোমা হামলা, ৪ সৈন্যসহ নিহত ১৭

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক॥
ফিলিপাইনে দক্ষিণাঞ্চলীয় একটি দ্বীপের একটি চার্চে জোড়া বোমা হামলায় অন্তত ১৭ জন নিহত হয়েছে। ২৭ জানুয়ারি দেশটির সেনাবাহিনীর একথা জানিয়েছে।

অঞ্চলটি ইসলামী উগ্রপন্থীদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। একটি নতুন মুসলিম স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় কয়েকদিন আগেই এখানে নির্বাচন হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

আঞ্চলিক সামরিক মুখপাত্র লেফটেনেন্ট কর্নেল গেরি বেসানা বলেন, রোববার সকালে গোলযোগপূর্ণ জোলোর একটি ক্যাথোলিক চার্চে প্রথম বিস্ফোরণ ঘটে। এ সময় পুন্যার্থীরা সেখানে প্রার্থনা করছিলেন। প্রথম বোমা হামলার পর সৈন্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। এসময় চার্চের পার্কিং লটে দ্বিতীয় বোমা হামলা চালানো হয়।

বেসানা বলেন, ‘এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা। আতঙ্ক ছড়ানোর জন্যই এ হামলা চালানো হয়। তারা শান্তি চায় না।’

তিনি আরো বলেন, এই হামলায় ৫ সৈন্য ও ১২ বেসামরিক লোক নিহত ও ৫৭ জন আহত হয়েছে।

তবে জাতীয় পুলিশ প্রধান ওস্কার আলবায়ালদে জানান, এই ঘটনায় ১৯ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হয়েছে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী ডেলফিন লোরেনজানা এক বিবৃতিতে বলেন, ‘এই ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসার জন্য আমরা আইনের সর্বাত্মক প্রয়োগ করবো।’

সেনাবাহিনী জানিয়েছে, আকাশ পথে বেশ কয়েকজন আহতকে চিকিৎসার জন্য পার্শ্ববর্তী জাম্বোয়াঙ্গা শহরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রস্তাবিত মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলে জোলো অবস্থিত। গত সপ্তাহে স্থানীয় ভোটাররা ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে।

দ্বীপটি ইসলামী উগ্রপন্থী গোষ্ঠি আবু সায়াফ গ্রুপের ঘাঁটি।
সূত্র : বাসস

Views 24 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad